সিরিয়ার বিরোধীপক্ষকে অস্ত্র সরবরাহে গ্রেট-বৃটেনের প্রস্তুতি রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুনের স্থিতির পরিপন্থী, রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদকের প্রতিনিধির উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে রিয়া নোভস্তি সংবাদ এজেন্সি. এ কথা ভালভাবেই জানা আছে যে, রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক সিরিয়ায় সঙ্কটের সামরিকীকরণের বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করছেন, কারণ তা সঙ্কটের মীমাংসায় সহায়তা করে না, উল্লেখ করেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের প্রতিনিধি মার্টিন নেসিরকি. মঙ্গলবার বৃটেনের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন বলেছেন যে, এ সম্ভাবনা বাদ দেন না যে, লন্ডন “নিজের মতো কাজ করবে”, যদি সিরিয়ার বিরোধীপক্ষকে অস্ত্র সরবরাহে নিষেধাজ্ঞা বাতিল করা সম্পর্কে ইউরোসঙ্ঘ-কে বিশ্বস্ত করতে না পারে. তাছাড়া, বৃটেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইলিয়াম হেগ বলেন যে, লন্ডন সিরিয়ায় তাড়াতাড়ি শাসন ব্যবস্থার বদলের জন্য চেষ্টা করবে বিরোধীপক্ষকে সক্রিয়ভাবে সাহায্য করার মারফত. আশা করা হচ্ছে যে, সিরিয়ার সঙ্কট একটি গুরুত্বপূর্ণ আলোচ্য বিষয় হবে রাশিয়া ও বৃটেনের কূটনীতিজ্ঞদের সাক্ষাতে, যা লন্ডনে বুধবার অনুষ্ঠিত হবে. রাশিয়া ও গ্রেট-বৃটেন এই প্রথম “২+২” বিন্যাসে – দু দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের অংশগ্রহণে লন্ডনে এক বৈঠকে স্ট্র্যাটেজিক সংলাপ চালাবেন সিরিয়ার পরিস্থিতি, ইরান এবং জরুরী দ্বিপাক্ষিক প্রশ্নাবলি নিয়ে, “রিয়া নোভস্তি” সংবাদ এজেন্সিকে আগে জানানো হয়েছে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে.