মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নাকি আফগান তালিবদের সাথে গোপন আলাপ-আলোচনা চালাচ্ছেএ অনুমান মোটেই ঠিক নয়, ওয়াশিংটনে বলেছেন হোয়াইট হাউজের প্রতিনিধি জে কারনি. ওয়াশিংটনে এক ব্রিফিংয়ে কারনি উল্লেখ করেন যে, মার্কিনী প্রতিরক্ষামন্ত্রী চার্লস হেগেল আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতির সাথে সাক্ষাতে এ দেশ থেকে মার্কিনী বাহিনী অপসারণ সংক্রান্ত সমস্ত প্রশ্ন আলোচনা করেছেন. রাষ্ট্রপতি ওবামার প্রতিনিধি বলেন, “বিগত ১২ বছরে আফগানিস্তানে নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা সুনিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে আফগান জনগণের আকাঙ্ক্ষায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র অনেক রক্তক্ষয় এবং সঙ্গতি ব্যয় করেছে তাদের সাহায্যের জন্য”. আগে আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতি বলেন যে, মার্কিনী কর্তৃপক্ষ আফগান কর্তৃপক্ষকে এড়িয়ে “তালিবান” আন্দোলনের সাথে আলাপ-আলোচনা চালাচ্ছে. তালিবদের প্রতিনিধি জাবিউল্লা মুজাহিদও কার্জাইয়ের উক্তি খণ্ডন করেছে এ কথা জোর দিয়ে বলে যে, আলাপ-আলোচনা স্থগিত রাখার সময় থেকে তাতে কোনো অগ্রগতি হয় নি. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তালিবদের মাঝে বেসরকারী আলাপ-আলোচনা শুরু হয়েছিল ২০১২ সালের মার্চে, কিন্তু তা নিষ্ফলভাবে শেষ হয়. বিদ্রোহীরা মার্কিনী আলাপ-আলোচনাকারীদের স্থিতি অতি ভাসা-ভাসা বলে অভিহিত করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে আলাপ-আলোচনা স্থগিত রাখার কথা ঘোষণা করে.