জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ কতৃক আরোপীত নতুন বাধানিষেধের আওতায় উত্তর কোরিয়ার ঠিকানায় পাঠানো ও উত্তর কোরিয়া থেকে পাঠানো সব মালপত্র খুঁজে দেখা হবে. ইতার-তাস সংবাদসংস্থার সংবাদদাতা দলিলটি অধ্যয়ন করে এই খবর প্রচার করেছেন. এরকম ব্যবস্থা হবে বাধ্যতামুলক, যদি খবর থাকে, যে মালপত্রের মধ্যে নিষিদ্ধ দ্রব্য রয়েছে. যদি মালবাহক নাবিকরা মালপত্র খুঁজে দেখাতে অস্বীকার করে, তাহলে তাদের কোনো বন্দরে নোঙর করার অনুমতি দেওয়া হবে না. মালবাহী বিমানের ক্ষেত্রেও একই নীতি অনুসরন করা হবে. এই ঘোষনাপত্রের খসড়া যৌথভাবে প্রস্তুত করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও চীন. রাশিয়া সহ নিরাপত্তা পরিষদের সব সদস্যদেশ একবাক্যে এই ঘোষনাপত্রের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে.