0রাশিয়া রাষ্ট্র হিসেবে সিরিয়ার সংরক্ষণে সহায়তা করতে পারে, তার ঐক্য, জাতীয় ও ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায় সম্বলিত জটিল বিন্যাস ও ধর্ম নিরপেক্ষ চরিত্র সংরক্ষণের দিক থেকে. এ মত প্রকাশ করেছেন সিরিয়ার বিরোধীপক্ষের একজন বিশিষ্ট ব্যক্তি জেনারেল মানাফ ত্লাস. শুক্রবার মস্কোয় রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ এবং অন্যান্য কূটনীতিজ্ঞের সাথে সাক্ষাতের আগে “রেডিও রাশিয়াকে” এক ইন্টারভিউ দেন. ব্রিগেডিয়ার ২০১২ সালের গ্রীষ্মকাল পর্যন্ত সিরিয়ার সৈন্যবাহিনীর উচ্চ পর্যায়ের এক বাহিনীর অধিনায়কত্ব করেন, যখন তিনি দেশের নেতৃবৃন্দের কার্যকলাপের তীব্র সমালোচনা করেন. এর ঠিক পরেই তিনি গোপনে সিরিয়া ত্যাগ করে ফ্রান্সে চলে যান. মানাফ ত্লাস বলেন, “আমার মস্কো সফরের উদ্দেশ্য – সিরিয়া সঙ্ঘর্ষের মীমাংসা খুঁজে বার করা. সিরিয়ায় রক্তক্ষয় বন্ধ করা দরকার. এই হিংসার চক্র ভেঙ্গে ফেলা দরকার. এ সমস্যার মীমাংসা খুঁজে বার করতে সাহায্য করার জন্য রাশিয়ার যথেষ্ট রাজনৈতিক গুরুত্ব আছে. আর তা হল বিরোধিতা চালিয়ে যাওয়ার বদলে সংলাপ গড়ে তোলায় সাহায্য করা”. আন্তর্জাতিক মধ্যস্থরা সিরিয়ায় অন্তর্বর্তী কালের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে তাঁর উপর বিশেষ আশা পোষণ করছে. মনে করা হচ্ছে যে, এই জনপ্রিয় অফিসার, প্রাক্তন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্শাল মুস্তাফা ত্লাসের পুত্র যুদ্ধরত পক্ষগুলির মাঝে সংলাপ গড়ে তুলতে সাহায্য করতে পারেন. সিরিয়ায় অগ্নি সংবরণ কিভাবে অর্জন করা যায় এ প্রশ্নের উত্তরে জেনারেল বলেন যে, তা হতে পারে রুশ-মার্কিন মধ্যস্থতা এবং রাষ্ট্রসঙ্ঘের পৃষ্ঠপোষকতায়. তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, সঙ্ঘর্ষের পক্ষগুলি অগ্নি সংবরণের গ্যারান্টিদাতা হতে পারে না.