ভারতের প্রধানমন্ত্রী শ্রীমনমোহন সিংয়ের স্থিরবিশ্বাস যে, দেশে বিনিয়োগ বিকাশের নতুন পরিকল্পনা আগামী তিন বছরে দেশের মোট আভ্যন্তরীন উত্পাদনের বৃদ্ধি ৮ শতাংশের মানে পুনর্স্থাপন করতে সাহায্য করবে. প্রধানমন্ত্রী দেশের নতুন বাজেট গ্রহণ সমর্থন করেছেন, এবং একই সঙ্গে উল্লেখ করেছেন যে, ভারতের অর্থনীতি বৃদ্ধির পথে প্রধান তিনটি বাধা হল বাজেটের ঘাটতি, মুদ্রাস্ফীতি এবং আর্থিক ভারসাম্যের অবনমন. সেই সঙ্গে, দেশের অর্থনীতির বিকাশ দ্রুততর করার জন্য ভারতের প্রয়োজন হবে প্রতি বছর এক কোটি নতুন কর্মস্থল সৃষ্টির, বলেন তিনি. তিনি দেশের বাজেটে ঘাটতি কমানোর জন্য এবং বিনিয়োগের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টির জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনার প্রশংসা করেন. একই সঙ্গে, তিনি বলেন যে, মধ্য-মেয়াদী পরিপ্রেক্ষিতে দেশে লোহা, কয়লা, সোনা ও তৈলজাত দ্রব্যের আমদানির উপর নির্ভরশীলতা দূর করতে হবে, শুক্রবার লিখেছে “হিন্দুস্তান টাইমস” পত্রিকা. ভারত সরকার বৃহস্পতিবার নতুন আর্থিক বছরের বাজেট অনুমোদন করেছে, যে বছর শুরু হবে পয়লা এপ্রিল থেকে. ভারতের নতুন বাজেট পরিকল্পনা অনুযায়ী দেশের গ্রামাঞ্চলের বিকাশ, স্বাস্থ্যরক্ষা ও শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নতি এবং স্বল্প-সচ্ছল অধিবাসীদের সাহায্য করা অনুমিত. ভারতের পার্লামেন্টে নতুন বাজেট পেশ করে বক্তৃতা দেন অর্থমন্ত্রী শ্রী পি. চিদাম্বরম. মন্ত্রী জোর দিয়ে বলেন যে, নতুন বাজেটে ব্যয় সঙ্কোচ হবে এবং সরকার সম্ভাব্য সমস্ত কিছুই করবে, যাতে আগামী আর্থিক বছরের শেষ দিকে ঘাটতি কমে ৪.৮ শতাংশ পর্যন্ত.