সোচিতে ২০১৪ সালের শ্বেত অলিম্পিকে দাবা খেলার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে. এই ইভেন্টে প্রতিযোগিতা অলিম্পিকের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের অঙ্গ হতে পারে. প্রখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ ও সোচি অলিম্পিকের দূত ইউরি বাশমেত এই প্রস্তাব দিয়েছেন. তিনি দ্বাদশ বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আনাতোলি কারপভের সঙ্গে বহুজনের সাথে ওয়ানটাইম দাবা খেলায় অংশ নিয়েছিলেন.

গ্র্যান্ডমাস্টারদের দৃঢ় বিশ্বাস, যে দাবা শুধুমাত্র অলিম্পিকের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেই নয়, অলিম্পিকের মূল ক্রীড়াসূচীর অন্তর্ভুক্ত হওয়ার যোগ্য. আন্তর্জাতিক দাবা সংস্থা – ফিডে, যার অন্তর্ভুক্ত ১৭৩টি সদস্য দেশ, গত কয়েক বছর ধরেই দাবাকে অলিম্পিক ক্রীড়াসূচীর অন্তর্ভুক্ত করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করছে. ফিডের অধ্যক্ষ কিরসান ইলুমঝিনভ একাধিকবার বলেছেন, যে একসারি দেশ তত্সম্পর্কীয় প্রস্তাব প্রনয়ণ করছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির প্রধান জ্যাঁক রোগের বিবেচনার জন্য.

উপরন্তু ফিডে প্রস্তাব দিচ্ছে দাবাকে শীতকালীন অলিম্পিকের ক্রীড়াসূচীর অন্তর্ভুক্ত করার জন্য. দাবাড়ুরা এমনকি বরফের ফিগার নিয়ে খেলতে প্রস্তুত, যাতে অলিম্পিকের সনদের সাথে মানানসই হওয়া যায়. ঐ সনদে উল্লেখ করা আছে, যে শীতকালীন ক্রীড়া হিসাবে গণ্য করা হয় শুধু সেইসব ইভেন্টকে, যেখানে বরফ বা তুষার ব্যবহার করা হয়.

তবে দাবার অলিম্পিকের ক্রীড়াসূচীর অন্তর্ভুক্ত হওয়ার সম্ভাবনা এখনও কুয়াশাবৃত. কিন্তু সোচিতে শীতকালীন অলিম্পিকে প্রদর্শনীমুলক প্রতিযোগিতা – দাবা খেলার জনপ্রিয়তা বৃদ্ধিতে অবশ্যই সাহায্য করবে. এ সম্পর্কে দৃঢ় মত পোষন করেন পাঁচবার রাশিয়ার জাতীয় চ্যাম্পিয়ন হওয়া গ্র্যান্ডমাস্টার পেওতর স্ভিদলার. –

দাবা অলিম্পিকের ক্রীড়াসূচীর অন্তর্ভুক্ত নয়. উপরন্তু, আমার মনে পড়ছে, যে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির প্রধান বলেছিলেন, যে এই প্রকল্প সম্পর্কে ভুলে যাওয়াই ভালো. ওরা নতুন কোনো ইভেন্ট যোগ করার বদলে পুরনো কিছু ইভেন্ট বরং কাটছাট করবে. তাই আমার মনে হয়, যে অলিম্পিকের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে দাবাকে অন্তর্ভুক্ত করার অর্থ হচ্ছে লড়ে যাওয়া এই ইভেন্টটিকে নিয়ে. একজন দাবাড়ু হিসাবে আমি এই খেলার প্রতি মনোযোগ আকর্ষণ করার যে কোনো উদ্যোগকে স্বাগত জানাই.

এরকম পরিকল্পনা করা হয়েছে, যে সোচি অলিম্পিকে দাবা খেলায় যেমন ক্রীড়াবিদরা, তেমনই যে কোনো অতিথি দর্শক অংশ নিতে পারবে. বছর ত্রিশেক আগে সারায়েভা অলিম্পিকে সর্বশেষ বার এরকম উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল. সেবার ঐ প্রতিযোগিতার মুখ্য সংগঠক ছিলেন আনাতোলি কারপভ. দাবাপ্রেমীরা মনে করেন, এর পুণরাবৃত্তি করার সময় হয়েছে ২০১৪ সালে সোচিতে.