কৌরভ জোতির্বিদ্যা পর্যবেক্ষন কেন্দ্রের অধ্যক্ষা পলিনা জাখারভা বলেছেন, যে উরালে উল্কাবৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া ছিল অসম্ভব. তার কথায় এটা উল্কাবৃষ্টি ছিল না, ছিল ১ কেজির বেশি ওজনের আলাদা বস্তু, কেননা আঘাতের তরঙ্গে কয়েক জায়গায় জানালার কাঁচ ভেঙে গেছে. সেক্ষেত্রে ৫ থেকে ২০ কিলোমিটার উচ্চতায় তাপের বিস্ফোরণ ঘটে, ফলশ্রুতিতে তীব্র আলোর ঝলক. পলিনা জাখারভার কথায়, যেহেতু জোতির্বিদেরা বায়ুমন্ডলে প্রবেশ করা কয়েক মিলিগ্রাম ওজনেরও হিসাব রাখেন, তাই ১ কিলো ওজন খুব বেশি. তবে জাখারভা উল্লেখ করেছেন, যে আলাদা একটা মহাজাগতিক বস্তুর ভূমিপতন নিয়ন্ত্রণবিহীন ও তার পূর্বাভাস দেওয়া অসম্ভব.