‘উন্মুক্ত সমাজ’ নামক নিউ-ইয়র্কে অবস্থিত ইনস্টিটিউটের রিপোর্টে প্রকাশিত হয়েছে, যে অন্ততঃ ৫৪টি রাষ্ট্র গোপনে সিআইএকে সাহায্য যোগায়. রিপোর্টের তথ্য অনুযায়ী, বিদেশের সরকারেরা অপরাধ করার সন্দেহে লোকজনকে ধরার ও আটক করার অভিযানে সিআইএকে সাহায্য করে থাকে. আর কিছু রাষ্ট্র, যেখানে অত্যাচার করা বেআইনি নয়, তাদের ভূখন্ডে সন্দেহজনক লোকেদের বন্দী করে রাখার জন্য সিআইএকে কারাগার দেওয়া হয়. সেরকম দেশগুলির তালিকায় আছে পাকিস্তান, আফগানিস্তান, মিশর, জর্ডান.

তাছাড়া আয়ারল্যান্ড, আইসল্যান্ড ও সাইপ্রাসের মতো দেশেরা সিআইএকে তাদের দেশে বিমানবন্দর ও আকাশসীমা ব্যবহার করার অধিকার দেয়. উক্ত তালিকায় কিছু ইউরোপীয় দেশও আছে. যেমন, সিআইএকে গোপনে সাহায্য করে জার্মানী, স্পেন, পর্তুগাল ও অস্ট্রিয়া. রিপোর্টে রাশিয়া সম্পর্কে কোনো উল্লেখ নেই.

ইনস্টিটিউটটির রিপোর্টে আমেরিকার শাসক কর্তৃপক্ষ ও অন্যান্য দেশের সরকারের কাছে আহ্বান জানানো হয়েছে সন্ত্রাসের মোকাবিলার নামে মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী পদ্ধতি প্রয়োগ করা থেকে বিরত থাকার জন্য.