বৃহস্পতিবার চীনের সীচুয়ান প্রদেশের আদালত তিব্বতের বৌদ্ধভিক্ষু ও তার ভাইপোর বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগ সম্পর্কে রায় দিয়েছে. সিনহুয়া সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, যে ৪০-বছর বয়সী সন্ন্যাসী কনচোক লোরাং ও তার ভাইপো সেরিং লোরাংকে আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়. ২০০৯ সালে সীচুয়ান প্রদেশে প্রতিবাদস্বরূপ লোকজনকে আত্মদাহে প্ররোচিত করার অপরাধে তাদের দুজনকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে. কনচোক লোরাংকে ম়ত্যুদন্ড দেওয়া হয়েছে, আর তার ভাইপোকে ১০ বছরের জন্য কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে. তিব্বতী অধ্যুষিত জনবসতি কেন্দ্রগুলিতে চীনা শাসক কর্তৃপক্ষের প্রযুক্ত নীতির প্রতিবাদে আত্মাহুতি দেওয়ার ঘটনা ঘটে প্রায়ই. বেইজিংয়ের সরকারী পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শুধু ২০১১ সালের মার্চ থেকে এই পর্যন্ত আত্মদাহ করে ২০ জনেরও বেশি তিব্বতবাসী প্রাণ বিসর্জন দিয়েছে.