চীনের বিজ্ঞানীরা রাশিয়ার জাতীয় অভয়ারন্য – ‘চিতাদের ভূমি’ পরিদর্শন করে সহকর্মীদের সাথে প্রাকৃতিক পরিবেশ সংরক্ষন ও আমুরের বাঘদের বাঁচানোর বিষয়ে সহযোগিতার পরিপ্রেক্ষিত নিয়ে আলোচনা করেছেন. চীনের ‘চানবাইশান’ অভয়ারন্যের কর্মী ও চীনা বিজ্ঞান এ্যাকাডেমির এক প্রতিনিধিদল রাশিয়ার সাথে সীমান্তবর্তী এলাকায় আমুরের বাঘদের অধ্যয়ন করার বিষয়ে ১লা জানুয়ারী থেকে চীনে শুরু হওয়া প্রকল্পের আওতায় এই সফরে এসেছেন. ‘ইন্টারফ্যাক্স’ সংবাদসংস্থা জানাচ্ছে, যে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি ২০১৩ সালের এপ্রিলে সই করা হবে বলে ঠিক করা হয়েছে.

রাশিয়া ও চীন ‘চিতাদের ভূমি’কে কেন্দ্র করে সীমান্তের উভয়দিকে নির্দিষ্ট এলাকা নির্ধারন করতে পারে দূর প্রাচ্যের চিতাদের ও আমুরের বাঘদের সংরক্ষন করার জন্য. প্রিমোরিয়া প্রাঙ্গনের দক্ষিণ – রাশিয়ায় দুরপ্রাচ্যের চিতাদের বেঁচে থাকার একমাত্র জায়গা. ঐ চিতা আন্তর্জাতিক রেড বুকে ঠাঁই পেয়েছে. উসুরিইস্কের বনাঞ্চলে ৫০টার মতো চিতা আছে. চীনে ও উত্তর কোরিয়ায় সবমিলিয়ে ৭-৯টা চিতা টিঁকে আছে.