ইউনেস্কোর নেওয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বুধবার মানবসমাজ বিশ্বব্যাপী ‘বিটলস দিবস’ পালন করছে. ‘বিটলস’ – লিভারপুলের প্রবাদপ্রতীম সঙ্গীতগোষ্ঠী. ১৯৫৭ সালের ১৬ই জানুয়ারী লিভারপুলে ‘ক্যাভার্ন’ নামক ক্লাব খোলা হয়েছিল ও সেখানেই বিটলসের আবির্ভাব ঘটেছিল. লোকগাথা অনুযায়ী, জন লেনন নাকি ভাবী দলটির নাম স্বপ্নে দেখেছিলেন – ইংরাজী থেকে অনুবাদে সেটা ঝিঁঝিপোকা. কিন্তু লেনন একটা অক্ষর বদলে দিয়ে e-এর বদলে a বসিয়েছিলেন, যার মানে beat - beat music. ‘বিটলস’ - বিংশ শতাব্দীর সবচেয়ে সফল ও জনপ্রিয় রক-গ্রুপ. ১৯৭০ সালে রিলিজ করেছিল ঐ গ্রুপের সর্বশেষ এ্যালবাম, যার নাম ছিল – “লেট ইট বি”. সেই বছরেই দলটি ভেঙে যায়. সঙ্গীতজ্ঞরা শুরু করেন ব্যক্তিগত কেরিয়ার আর ১৯৮০ সালের ৮ই ডিসেম্বর জন লেনন নিহত হন নিউ-ইয়র্কে তাঁরই অনুগামী ও মনরোগাক্রান্ত মার্ক চ্যাপম্যানের গুলিতে. ২০০১ সালের ২৯শে নভেম্বর পরলোক গমন করেন ক্যান্সারাক্রান্ত জর্জ হ্যারিসন. বাকি ২ জন বিটলসের সদস্য – পল ম্যাকার্টনি ও রিংগো স্টার এখনো সঙ্গীত পরিবেশন করে চলেছেন.