সন্ত্রাসবাদ দমন, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক এবং সামরিক খাতে একসারি চুক্তিপত্র সই করেছে বাংলাদেশ ও রাশিয়া। মস্কো সফররত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও রুশ রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের মধ্যে ক্রেমলিনে আজ অনুষ্ঠিত দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে এসব চুক্তিপত্র সই হয়েছে।

সন্ত্রাসবাদ দমনে যৌথভাবে কাজ করার ঐক্যমত প্রকাশ করে এ সংক্রান্ত চুক্তিপত্র সই করে দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রনালয়। এছাড়াও বৈঠকে বানিজ্য, জ্বালানী, মহাকাশ গবেষনা, কৃষিক্ষেত্র ও স্বাস্থ্যখাত সম্পর্কে চুক্তি সই করে নিজ নিজ দেশের প্রতিনিধিরা।

আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়। পুতিন ও হাসিনা সিরিয়ার সংকট শান্তিপূর্ণ সমাধান চেয়েছেন।

সই হওয়া উল্লেখযোগ্য চুক্তিগুলোর মধ্যে রয়েছে- পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের জন্য বাংলাদেশকে রাশিয়ার ৫শ’ মিলিয়ন ডলার ঋণ সরবরাহ এবং রাশিয়ার কাছ থেকে রাষ্ট্রীয় ঋণে ১০০ কোটি ডলারের সমরাস্ত্র কেনা।

এছাড়া রাশিয়ার সহযোগিতায় বাংলাদেশে পরমাণু জ্বালানী বিষয়ক একটি তথ্যকেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করা হবে। ভিয়েতনাম ও তুরষ্কের পর বাংলাদেশে এটি হবে রাশিয়ার এ ধরণের তৃতীয় পরমাণু জ্বালানী তথ্যকেন্দ্র।