রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি এই ঘোষণা দেশের উত্তরে সিয়েভেরোমোরস্ক শহরে যুদ্ধ জাহাজ “পিটার দ্য গ্রেট” কে “নাখিমভ অর্ডার” সম্মানে ভূষিত করার অনুষ্ঠানে এসে করেছেন. তাঁর কথামতো, শক্তিশালী ও ফলপ্রসূ নৌবাহিনীর বিকাশ – দেশের একটি অন্যতম প্রাথমিক কাজ. “আমরা দেশের জলের উপরের ও নীচের যুদ্ধ জাহাজের দলের সংখ্যা বৃদ্ধি করব, মজবুত করবো সব রকমের কাজের উপযুক্ত শক্তিকে ও তারই সঙ্গে যা কিছু স্ট্র্যাটেজিক পারমানবিক শক্তির সঙ্গে জড়িত তাও”,- বলেছেন পুতিন. তিনি বিশ্বাস করেন যে, দেশের নৌবাহিনী আধুনিকীকরণের বিষয়ে যে সুদূর প্রসারিত পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে, যাতে ১০০টি নতুন জাহাজ ও ডুবোজাহাজ যোগ করা হতে চলেছে, তা অবশ্যই সম্পূর্ণ ভাবে করা হবে. রাষ্ট্রপতি মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, বৃহস্পতিবারে রাশিয়ার নৌবাহিনীতে যোগ করা হয়েছে রকেট বাহী ডুবোজাহাজ “ইউরি দোলগারুকি”.