ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব সইদ জালিলি, যিনি পারমাণবিক বিষয়ে দেশের মুখ্য আলাপ-আলোচনাকারী, শুক্রবার এ কথা সমর্থন করেছেন যে, মধ্যস্থ “ছয় দেশের” সাথে আলাপ-আলোচনার পরবর্তী রাউন্ড অনুষ্ঠিত হবে জানুয়ারী মাসেই. তবে সঠিক তারিখ এবং সাক্ষাতের স্থান এখনও নির্ধারিত হয় নি, জানিয়েছে রয়টার সংবাদ এজেন্সি. ডিসেম্বরের মাঝামাঝি রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল যে, ইরান এবং মধ্যস্থ “ছয় দেশের”, যাতে অন্তর্ভুক্ত রাশিয়া, গ্রেট-বৃটেন, চীন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স এবং জার্মানি, পূর্ণপরিসরের সাক্ষাতের স্থান এবং সময় নিয়ে তেহেরানের সাথে সর্বসম্মতি করা হচ্ছে. আগের আলাপ-আলোচনা কোনো বিশেষ অগ্রগতির সিদ্ধান্ত গ্রহণ ছাড়াই শেষ হয়েছিল. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, পশ্চিমের একসারি দেশ এবং ইস্রাইল ইরানকে সন্দেহ করছে শান্তিপূর্ণ পারমাণবিক কর্মসূচির আড়ালে পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি করার. তেহেরান বলছে যে, তার পারমাণবিক কর্মসূচি নির্দেশিত শুধু দেশের বিদ্যুত্শক্তির চাহিদা পুরণ করার জন্যই.