ভারতের দিল্লীতে গণধর্ষণে নিহত তরুনীটির স্মৃতিরক্ষার্থে আইন গ্রহণ করার জন্য তার নাম প্রকাশ করার দাবী করা হচ্ছে. দেশের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী শশী তারুর এই মত প্রকাশ করেছেন. মন্ত্রীর মতে, ১৬ই ডিসেম্বর গণধর্ষণ ও ধোলাইয়ের শিকার হওয়া তরুনীটির পিতামাতা গররাজি না হলে, যার নাম এখনো গোপন করা হচ্ছে, তার স্মৃতিরক্ষার্থে আইন জারি করা উচিত. মেয়েটি গত শনিবার সিঙ্গাপুরে হাসপাতালে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেছে সজ্ঞানে না ফিরেই. ঐ গোটা সময়টা তার শারিরীক অবস্থা ছিল আশঙ্কাজনক. ঐ অপরাধের পরে ভারতে নারীদের প্রতি খারাপ ব্যবহারের প্রতিবাদে ব্যাপক প্রতিবাদ জানানো হয় ও ধর্ষণকারীদের ম়ত্যুদন্ড দেওয়ার আইন প্রনয়ণ করার দাবী করা হয়.