সন্ত্রাসবাদী “আল-কাইদা” সংস্থার ইয়েমেন শাখা ঘোষণা করেছে যে, সানা-য় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত জেরাল্ড ফায়ারস্টেন-কে যে হত্যা করবে, তাকে ৩ কিলোগ্রাম সোনা (১ লক্ষ ৬০ হাজার ডলার) দিতে প্রস্তুত. ইয়েমেনের ভূভাগে হত্যা করা যেকোনো মার্কিনী সৈনিকের জন্য সন্ত্রাসবাদীরা ২৩ হাজার ডলার দেওয়ার প্রস্তাব করছে, জানিয়েছে “অ্যাসোশিয়েটেড প্রেস” সংবাদ এজেন্সি. সংবাদ এজেন্সি উল্লেখ করেছে যে, ইয়েমেনের “আল-কাইদার” তথাকথিত “প্রস্তাব” আগামী ছয় মাস বলবত্ থাকবে. “আল-কাইদার” ইয়েমেন শাখা, যা “আরব উপদ্বীপে আল-কাইদা” নামেও কুখ্যাত – এ অঞ্চলে তথা সারা পৃথিবীতে সবচেয়ে সক্রিয় একটি সন্ত্রাসবাদী দল. ২০১০ সালের নভেম্বরে তার নেতারা সংযুক্ত আরব এমীরশাহীর মালবাহী বিমান ধ্বংস করার জন্য দায়িত্ব গ্রহণ করেছিল. তাছাড়া তারা বিস্ফোরক সরঞ্জাম সম্বলিত পার্সেল পাঠানোর জন্যও দায়িত্ব গ্রহণ করেছিল, যা পাওয়া গেছে লন্ডনের কাছে ডাকে পাঠানো মালপত্রের মাঝে এবং দুবাইয়ের গুদামে. সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে সংগ্রামে ইয়েমেনের সামরিক কর্মীদের সাহায্য করছে মার্কিনী সামরিক বাহিনী, যারা ড্রোন বিমানের সাহায্যে জঙ্গীদের স্থিতির অনুসন্ধান চালাচ্ছে এবং সেখানে আঘাত হানছে.