চীনা কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক সি জিনপিন দেশে ইন্টারনেটের প্রসারের ওপর, বিশেষ করে নেটে উচ্চপদস্থ আমলাদের সম্পর্কে কটুমন্তব্য করার ওপর নিয়ন্ত্রণ কঠোরতর করার প্রস্তাব দিয়েছেন. ‘এ্যাসোশিয়েটেড প্রেস’ সংবাদসংস্থা জানিয়েছে, যে চীনের আইনপ্রনয়ণকারী কক্ষগুলি এই সপ্তাহে উপোরক্ত প্রশ্নে কি কি ব্যবস্থা গ্রহণীয়, তাই নিয়ে আলোচনা করেছে. যেসব বিদেশী সার্ভার খবর, বইপত্র, সঙ্গীত ইত্যাদি ‘অনলাইনে’ প্রচার করে, সেগুলোকে বন্ধ করে দেওয়ার ব্যাপারে বেইজিংয়ে চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে. তাছাড়াও কমিউনিস্ট পার্টির সদস্যরা ভাবছে, যে কি করে সরকারী কর্মচারীদের বিরূদ্ধে নালিশ করা বেনামী চিঠিপত্রের আবির্ভাব বন্ধ করা যাবে ইন্টারনেটে. যে কোনো ব্যক্তি যেকোনো সাইটে তার মন্তব্য রাখতে চাইলে, তাকে অবশ্যই তার নাম লিখতে হবে – এমনটি আবশ্যিক করতে চায় দেশের কেন্দ্রীয় সরকার. সুতরাং চীনে ইন্টারনেট হয়ে দাঁড়াবে শুধু পঠনপাঠন ও বাণিজ্যের জন্য সহায়ক মাধ্যম - বলে ‘এ্যাসোশিয়েটেড প্রেসের’ ধারনা.