মিশরের রাষ্ট্রপতি মুহম্মেদ মুর্সি প্রধানমন্ত্রী হিশাম কান্ডিল-কে সরকারে অদল-বদল করার দায়িত্ব দিয়েছেন. দেশে নতুন সংবিধান বলবত্ হওয়া উপলক্ষে বুধবার জাতির প্রতি সম্বোধনে তিনি এ সম্বন্ধে বলেছেন. তিনি আরও ঘোষণা করেন যে, বুধবার থেকে দেশে বিধানিক শাসন ক্ষমতা এসেছে পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ পরামর্শ পরিষদের হাতে. নিজের বক্তৃতায় রাষ্ট্রপতি সমস্ত রাজনৈতিক শক্তিকে জাতীয় সংলাপের জন্য আহ্বান জানান বিদ্যমান সমস্যাবলি মীমাংসার জন্য, এ বিষয়ের উপর জোর দিয়ে যে, “মিশরে ফলপ্রদ বিরোধীপক্ষের অধিকার কখনও ক্ষুণ্ণ করা হবে না”. আগে জানানো হয়েছিল যে, মুর্সি ২৬শে ডিসেম্বর দেশের নতুন সংবিধান স্বাক্ষর করেছেন. তার আগে এ দলিলটি অনুমোদিত হয়েছিল গণভোটে: সরকারী তথ্য অনুযায়ী, সংবিধানের খসড়ার পক্ষে ভোট দিয়েছে প্রায় ৬৪ শতাংশ মিশরীয়. প্রসঙ্গত, বিরোধীপক্ষের মতে, গণভোটের ফলাফল জাল করা বলে তারা তা যাচাই করাতে চায়, এবং তারা এ সংবিধান বাতিল করানোর চেষ্টা করবে.