মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মিশরে সমস্ত রাজনৈতিক শক্তিকে আহ্বান জানিয়েছে নতুন সংবিধান নিয়ে দেশে গণভোটের ফলাফল ঘোষণার পর রাজনৈতিক সর্বসম্মতি সুদৃঢ় করার. মার্কিনী পররাষ্ট্র বিভাগের প্রতিনিধি প্যাট্রিক ওয়েনট্রেল সেই সঙ্গে উল্লেখ করেন যে, গণতান্ত্রিক ভাবে নির্বাচিত মিশরের রাষ্ট্রপতি মুর্সি-র উপরে বিশেষ দায়িত্ব রয়েছে বিরোধীপক্ষের সাথে মতভেদ অতিক্রমের. ওয়াশিংটন আশা করে যে, সেই মিশরীরা, যারা গণভোটের ফলাফলে হতাশ হয়েছে, তারাও আরও গভীর সম্মতির জন্য সচেষ্ট হবে. মার্কিনী কূটনীতিজ্ঞ জোর দিয়ে বলেন, “আমরা আরও আশা করি যে সমস্ত পক্ষ হিংসার নিন্দা ও তা নিবারণের বাধ্যবাধকতা নিজেদের উপর গ্রহণ করবে”. জানানো হয়েছে যে, মঙ্গলবার মিশরের কেন্দ্রীয় নির্বাচনী কমিশন ১৫ই এবং ২২শে ডিসেম্বর সংবিধান নিয়ে গণভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে স্বীকার করেছে. কমিশন ঘোষণা করেছে যে, নতুন সংবিধানের পক্ষে ভোট দিয়েছে ৬৪ শতাংশ নির্বাচক. বিরোধীপক্ষ গণভোটের ফলাফল মানতে অস্বীকার করেছে, ঘোষণা করেছে তা জাল করা হয়েছে.