রাশিয়ার স্থিতি সত্যিকার ভারসাম্যপূর্ণ, যা কঠোর রাজনৈতিক সঙ্কট থেকে সিরিয়াকে বার করে আনার জন্য নির্দেশিত. এ সম্বন্ধে রেডিও রাশিয়াকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন লেবাননের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদনান মানসুর. তাঁর কথায়, বহু দেশ, বিশেষ করে পশ্চিমী দেশগুলি সিরিয়ার ব্যাপারে হস্তক্ষেপের চেষ্টা করছে. মানসুরের স্থিরবিশ্বাস যে, ভবিষ্যতেও যদি এমন চলতে থাকে, তাহলে সিরিয়ার সঙ্কট প্রলম্বিত হবে. মন্ত্রী বলেন, “তা মীমাংসিত হতে পারে শুধু আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে, অস্ত্রের ব্যবহার ছাড়া. কিন্তু, দুঃখের বিষয়, ক্রমেই স্পষ্ট হয়ে উঠছে যে, সংলাপ কারুর জন্য লাভজনক নয়. উপরন্তু, কিছু দেশ খোলাখুলিভাবে সামরিক ক্রিয়াকলাপে নিজের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে এবং খোলাখুলি ঘোষণা করছে বিরোধীপক্ষকে অস্ত্রে সজ্জিত করার জন্য কত পরিমাণ অর্থ তারা দিতে প্রস্তুত”. লেবাননে সিরিয়ার শরণার্থীদের কথায় এসে মানসুর জোর দিয়ে বলেন যে, বেইরুট তাদের জন্য সম্ভাব্য সবকিছুই করছে. “আমরা সাহায্য দেওয়া আন্তর্জাতিক মানবতাবাদী সংস্থা ও দেশগুলির সাথে পারস্পরিক ক্রিয়াকলাপ চালাচ্ছি. এখন আমরা শরণার্থীদের সমস্ত চাহিদা সম্পূর্ণভাবে মেটাতে পারছি – আর তাদের প্রয়োজন খাদ্যদ্রব্যের, জামা-কাপড়ের এবং আরও অনেক কিছুর”, -বলেন মন্ত্রী, এবং যোগ করে বলেন যে লেবাননের ক্ষমতা, দুঃখের বিষয়, সীমাহীন নয়.