রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন মনে করেন যে, দেশের পরবর্তী বিকাশের জন্য অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ শর্ত হল স্থিতিশীলতা. তিনি এই বিষয়ে আজ মস্কো শহরে এক সাংবাদিক সম্মেলনে ঘোষণা করেছেন, যেখানে রাশিয়ার সমস্ত এলাকা থেকেই প্রায় হাজারেরও বেশী সাংবাদিক জড়ো হয়েছিলেন.

সাংবাদিকদের প্রশ্ন করার আগেই রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি বিগত বছরে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের সম্বন্ধে একটি মূল্যায়ণ করেছেন. তিনি বলেছেন:

“অর্থনৈতিক উন্নতির মূল সূচক হল – দেশের বার্ষিক সার্বিক উত্পাদনের হার, যা এই বছরের জানুয়ারী থেকে অক্টোবর মাসে হয়েছে শতকরা ৩, ৭ শতাংশ. এটা গত বছরের চেয়ে সামান্য কম, কিন্তু আমি উল্লেখ করতে চাই যে, ইউরো এলাকার মন্দা ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক উন্নতির হার কমে যাওয়ার মতো পরিস্থিতিতে ও এমনকি চিনের কিছুটা গতি ব্যাহত হওয়ার পরিবেশেও সব মিলিয়ে এই ফলাফলকে মনে করা যেতে পারে ভাল বলেই. মূল্যবৃদ্ধি সম্পর্কে যা বলা যেতে পারে, তা হল যে, গত বছরে তা বিগত কুড়ি বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম হয়েছিল, এই বছরে তা সামান্য বেড়ে গিয়েছে – শতকরা ৬, ৩ শতাংশ, কিন্তু বাস্তবে তা প্রায় একই সংখ্যার কাছেই রয়েছে.”

পুতিনকে করা বেশীর ভাগ প্রশ্নই রাশিয়ার আভ্যন্তরীণ জীবন নিয়ে করা হয়েছিল. সাংবাদিকরা আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন বিদেশ নীতি নিয়েও. কুরিল দ্বীপপূঞ্জ সংক্রান্ত সমস্যা সম্বন্ধে বলতে গিয়ে, পুতিন জাপানের নতুন প্রশাসনের তরফ থেকে রাশিয়ার সঙ্গে শান্তি চুক্তি সমাধানের প্রতি আগ্রহকে খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করেছেন ও এমনকি গঠন মূলক আলোচনার জন্য প্রস্তুত আছেন বলেও জানিয়েছেন. আগে যেমন বলা হয়েছিল, ১৭ই ডিসেম্বর জাপানের লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক দলের নেতা ও দেশের ভবিষ্যত প্রধান মন্ত্রী সিনঝো আবে ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার সঙ্গে এলাকা সংক্রান্ত প্রশ্নের সমাধানের ইচ্ছা ও শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরের অভিপ্রায়. সাখালিন এলাকার এক সাংবাদিক একই সঙ্গে প্রস্তাব করেছেন কুরিল দ্বীপ পূঞ্জের একটি দ্বীপকে ভ্লাদিমির পুতিনের নামে নামকরণ করার, যাতে সকলের কাছেই স্পষ্ট হয় যে, এটা রুশ এলাকা. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি এই প্রস্তাবের ধারণা খারিজ করেছেন. পুতিনের মতে যদি এই দ্বীপপূঞ্জের নাম বদল করতেই হয়, তবে তা করা উচিত্ তলস্তয় বা পুশকিনের নামে.

আন্তর্জাতিক সমস্যা সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে রাষ্ট্রপতি উল্লেখ করেছেন যে, রাশিয়াতে সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসাদের ভাগ্য নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হচ্ছে না, বরং করা হচ্ছে এই দেশের ভবিষ্যত নিয়েই. তাই তিনি বলেছেন:

“আমরা আসাদের প্রশাসনের ভাগ্য নিয়ে উদ্বিগ্ন নই, আমরা বুঝতে পারি যে, এই পরিবার দেশের ক্ষমতায় রয়েছে আজ চল্লিশ বছর. কোন সন্দেহ নেই যে, পরিবর্তনের দাবী রয়েছে”.

একই সঙ্গে তিনি উল্লেখ করেছেন যে রাশিয়াকে উদ্বিগ্ন করে সিরিয়া রাষ্ট্রের ভবিষ্যত. রাশিয়াকে একই সঙ্গে আতঙ্কিত করে সেই সম্ভাবনা যে, আজকের বিরোধী পক্ষ ক্ষমতায় এলে, কিছুদিন আগের বিরোধী পক্ষের সঙ্গে যুদ্ধে মত্ত হবে, আর এটা চলতে থাকবে অনন্তকাল ধরেই. পুতিন বিশেষ করে বলেছেন যে, প্রয়োজন হল যে, “সিরিয়ার লোকরাই নিজেদের মধ্যে চুক্তি করার – কি ভাবে পরে বাঁচা হবে”.

পুতিন আরও একবার উল্লেখ করেছেন যে, মস্কোকে উদ্বিগ্ন করে যত না রাষ্ট্রপতি আসাদের ভাগ্য, তার থেকেও অনেক বেশী করেই সিরিয়ার পরিস্থিতির কারণে এই সমগ্র অঞ্চলের পরিস্থিতি. তিনি মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, লিবিয়াতে যে ঘটনা ঘটেছে, য সামরিক যুদ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমের দেশ গুলি যোগ দিয়েছিল, তা এই দেশে মাত্স্যন্যায় ও রাষ্ট্রের পতন ডেকে এনেছে. পুতিন মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, এটা শেষ হয়েছে বেনগাজী শহরের ট্র্যাজেডি দিয়েই, যখন জঙ্গী হামলায় নিহত হয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লিবিয়াতে রাষ্ট্রদূত. রুশ প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রপতি উল্লেখ করেছেন যে, রাশিয়া সিরিয়াতে লিবিয়ার চিত্রনাট্য আবার করে হওয়ার বিরুদ্ধে.

ভ্লাদিমির পুতিন থেমেছেন দুর্নীতির সঙ্গে লড়াই প্রসঙ্গেও. তাঁর মতে দুর্নীতির জন্য শাস্তি আরও কঠিন করা দরকার. তিনি স্বীকার করেছেন যে, রাশিয়াতে এই সমস্যা ঐতিহ্য পরম্পরায় চলেই আসছে, তা স্বত্ত্বেও দুর্নীতির সঙ্গে লড়াই চলছে খুবই সিরিয়াস ভাবে. তিনি বলেছেন:

“দুর্নীতির সঙ্গে সংযুক্ত প্রশ্ন সরাসরি ভাবে অর্থনীতির উন্নতির সঙ্গেই যুক্ত. দেখুন সমস্ত উন্নতিশীল বাজার অর্থনীতির দেশ কোন না কোন ভাবে এই সামাজিক রোগে আক্রান্ত. এটা কি সম্বন্ধে বলে? সেই নিয়ে নয় যে, আমরা এক উপরে থুথু ফেলবো আর বলবো: দূর এটা আমাদের ঐতিহ্য, তা ছিল আর সব সময়েই থাকবে. তা বলা যেতে পারে না. এর সঙ্গে লড়াই করতেই হবে. পরম্পরা মেনে ও খুবই জেদের সঙ্গে. আর এর জন্য শাস্তিও বাড়াতে হবে. আর এমন করতে হবে যে, যে কোন ধরনের অধিকার খর্বের জন্যই শাস্তি হবে এড়ানোর অযোগ্য”.

0চার ঘন্টা তেত্রিশ মিনিট সময়ে রুশ রাষ্ট্রপতি পুতিনের পক্ষে সম্ভব হয়েছিল ৬২টি প্রশ্নের যথেষ্ট ব্যাখ্যা করে উত্তর দেওয়ার. কৌতূহলী পাঠকের জন্য এই সাংবাদিক সম্মেলনের প্রশ্নোত্তর পর্বের ইংরাজী অনুবাদ রুশ রাষ্ট্রপতির সাইটে http://eng.kremlin.ru/news/4779 ঠিকানায় পাওয়া যাবে.