ইরানের পার্লামেন্টারী প্রতিনিধিদলের প্রধান হামিদ রেজা তারাগি উত্তর কোরিয়ায় বলেছেন যে, পিয়ংইয়ং স্পুতনিক সহ রকেট ক্ষেপণের পরিকল্পনা সম্পর্কে তেহেরানকে জানিয়েছিল সরকারী ঘোষণার এক মাস আগে, এ ঘোষণা করা হয়েছিল ১লা ডিসেম্বর. এ সম্বন্ধে জানিয়েছে “এন.এইচ.কে” টেলি-চ্যানেল. টেলি-চ্যানেলকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে ইরানের পার্লামেন্ট সদস্য বলেন যে, তা ঘটেছিল তেহেরানের প্রতিনিধিদল এবং পিয়ংইয়ংয়ের সহকর্মীদের মাঝে আলাপ-আলোচনার সময়, যা অনুষ্ঠিত হয়েছিল অক্টোবরের মাঝামাঝি. তারাগি বলেন যে, উভয় পক্ষ তাছাড়া আলোচনা করেছে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে পশ্চিমী দেশগুলির দ্বারা প্রবর্তিত অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার পরিণতি লাঘব করার সম্ভাব্য বিভিন্ন ধরণ. তাছাড়া তাঁরা জ্বালানী ও খাদ্যদ্রব্য সরবরাহের ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা বিকাশে সমঝোতায় এসেছেন. স্পুতনিক সহ রকেট ক্ষেপণে উত্তর কোরিয়ার প্রস্তুতির ক্ষেত্রে তেহেরান ও পিয়ংইয়ংয়ের মাঝে সম্ভাব্য সহযোগিতার খবর একাধিকবার দেখা দিয়েছিল আন্তর্জাতিক প্রচার মাধ্যমে. আগে তেহেরান প্রচার মাধ্যমের এমন সব খবর অস্বীকার করেছিল. জানানো হয়েছিল যে, উত্তর কোরিয়া স্পুতনিক সহ রকেট ক্ষেপণ করেছিল ১২ই ডিসেম্বর. আন্তর্জাতিক জনসমাজ এ ক্ষেপণের নিন্দে করেছিল, কারণ রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্ত লঙ্ঘন করে তা করা হয়েছিল.