মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মনে করে যে, পিয়ংইয়ংয়ের বর্তমান রাজনীতি তাদের বাধ্য করছে উত্তর কোরিয়ার উপর চাপ বাড়ানোর উপর জোর দিতে. এ সম্বন্ধে ওয়াশিংটনে এক ব্রিফিংয়ে বলেছেন মার্কিনী পররাষ্ট্র বিভাগের প্রতিনিধি ভিক্টোরিয়া ন্যুল্যান্ড. তিনি উল্লেখ করেন যে, রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে পরামর্শের এবং তাছাড়া উত্তর কোরিয়া সংক্রান্ত ছয়পাক্ষিক আলাপ-আলোচনার কাঠামোতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র “উত্তর কোরিয়ার শাসনের উপর চাপ বাড়াবে”. ন্যুল্যান্ড আরও উল্লেখ করেছেন যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রচেষ্টা চালাবে, যাতে উত্তর কোরিয়ার নতুন নেতা কিম চেন ঈনের সাথে সংলাপ গড়ে তোলা যায়. কিন্তু তার উত্তরে উত্তর কোরিয়া উত্তর কোরিয়ার আগের শাসনের সাথে অর্জিত সমঝোতা লঙ্ঘন করেছে, এবং নিজের রকেট কর্মসূচি সক্রিয় করেছে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও পাশ্চাত্য পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরও কঠোর করার উপর জোর দিচ্ছে. চীন মনে করে যে, উত্তর কোরিয়ার উপর অতি মাত্রায় চাপ দিলে কোরিয়া উপদ্বীপে উত্তেজনা শুধু বাড়বে.