রাষ্ট্রসঙ্ঘের হাতে সিরিয়ায় বিরোধীদের অস্ত্র সরবরাহের জন্য বিদেশী মানবতাবাদী সাহায্যের চ্যানেল ব্যবহারের কোনো সাক্ষ্য প্রমাণ নেই. এ সম্বন্ধে সাংবাদিকদের বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের সহকারী সাধারণ সম্পাদক ভালেরি আমোস নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার বৈঠকের পরে. তাঁর কথায়, সিরিয়ার কর্তৃপক্ষও মানবতাবাদী সাহায্যের চ্যানেল ব্যবহার করে বিরোধীদের অস্ত্র সরবরাহের কোনো সাক্ষ্য প্রমাণ পেশ করে নি. আমোস বলেন যে, তাদের “শুধু উদ্বেগ রয়েছে যে, মানবতাবাদী অভিযান এর জন্য ব্যবহৃত হয়ে থাকতে পারে”. তিনি বলেন যে, দীর্ঘকালীন পরিপ্রেক্ষিতে সিরিয়ার বিরোধীপক্ষের তত্ত্বাবধানে মানবতাবাদী সাহায্যের মূল্যায়ন ও সঙ্গতি সাধনের সম্পর্কে নতুন গ্রুপের সাথে আলাপ-আলোচনা করা হচ্ছে. সেই সঙ্গে আমোস উল্লেখ করেন যে, সরকার স্বীকার করেছে যে, রাষ্ট্রসঙ্ঘের এমন আলাপ-আলোচনা চালানো প্রয়োজন সঙ্ঘর্ষে ক্ষতিগ্রস্ত জনসাধারণকে সাহায্য করার জন্য.