রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের আমন্ত্রণে এদেশে সরকারী সফরে যাবেন ২৪শে ডিসেম্বর, সোমবার জানিয়েছে ক্রেমলিনের প্রেস সার্ভিস. আলাপ-আলোচনায় পক্ষদ্বয় রুশ-ভারত স্ট্র্যাটেজিক শরিকানা আরও বিকাশের সুনির্দিষ্ট সব প্রশ্ন আলোচনার পরিকল্পনা করছে, ক্রেমলিনের ঘোষণা উদ্ধৃত করে জানিয়েছে “ইন্টারফাক্স” সংবাদ এজেন্সি. পক্ষদ্বয় বাণিজ্যিক-অর্থনৈতিক, বিনিয়োগ, সামরিক-প্রযুক্তিগত, বিদ্যুত্ ও জ্বালানী এবং সাংস্কৃতিক-মানবতাবাদী ক্ষেত্রে সহযোগিতার প্রশ্ন আলোচনা করবে. সফরের সময় তাছাড়া জরুরী আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক প্রশ্নাবলি সম্বন্ধে মত-বিনিময় হবে. একসারি যৌথ দলিল স্বাক্ষরিত হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে. ২০১২ সাল দু দেশের জন্যই জয়ন্তীর বছর – ৬৫ বছর আগে রাশিয়া ও ভারতের মাঝে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপিত হয়েছিল. ক্রেমলিনে মনে করিয়ে দেওয়া হয় যে, দু দেশ ঘনিষ্ঠভাবে পারস্পরিক ক্রিয়াকলাপ চালাচ্ছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের কাঠামোতে, “জি-২০”, ব্রিক্স, শাংহাই সহযোগিতা সংস্থা, রাশিয়া-ভারত-চীন এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক গ্রুপের কাঠামোতে.