দক্ষিণ কোরিয়া ঠিক করেছে, যে পিয়ং-ইয়ং দূরপাল্লার রকেট নিক্ষেপ করার পরে অন্তঃকোরিয় আদানপ্রদানের ক্ষেত্রে তারা সংযমী হবে. দেশের উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে মিলন বিষয়ক মন্ত্রীসভার এক প্রতিনিধি এই কথা ঘোষনা করেছেন. তিনি আরও বলেছেন, যে রকেট নিক্ষেপ বড়সড় সমস্যার সৃষ্টি করেছে, যাকে এড়িয়ে চলা সম্ভব নয়. মন্ত্রণালয় দক্ষিণ কোরিয়ার নাগরিকদের উত্তর কোরিয়া সফরের ওপর নিয়ন্ত্রণ কড়া করবে ও দুই কোরিয়ার মধ্যে পারস্পরিক বিনিময়ের ক্ষেত্রে কঠোর হবে.

মুলতঃ উত্তর কোরিয়া সফর করে দক্ষিণ কোরিয়ার বিভিন্ন বেসরকারী সংস্থার প্রতিনিধিরা, যারা উত্তর কোরিয়ার দুঃস্থ জনসাধারনকে ত্রাণ সাহায্য দিয়ে থাকে. প্রত্যেকটি ঐরকম সফর করার জন্য কোরিয়ার মিলন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কাছ থেকে তাদের বিশেষ অনুমতিপত্র পেতে হয়.