প্রচার মাধ্যমের খবর সত্ত্বেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ার বিরোধীপক্ষকে অস্ত্রে সজ্জিত করতে চায় না. এ সম্বন্ধে ওয়াশিংটনে এক ব্রিফিংয়ে বলেছেন মার্কিনী পররাষ্ট্র বিভাগের প্রতিনিধি ভিক্টোরিয়া ন্যুল্যান্ড. তাঁর কথায়, ওয়াশিংটনের স্থিতি হল এই যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ার বিরোধীপক্ষকে শুধু অ-সামরিক সাহায্যই দিচ্ছে. আগে বৃটেনের “সানডে টাইমস” পত্রিকা জানিয়েছিল যে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গোপনে সিরিয়ার বিরোধীপক্ষকে বড় বড় কিস্তি অস্ত্র সরবরাহ করা শুরু করছে, যাতে রাষ্ট্রপতি বাশার আসদ-কে তাড়াতাড়ি শাসন ক্ষমতা থেকে অপসারণ করা যায়. বিরোধীপক্ষের সাথে সরকারী বাহিনীর সশস্ত্র সঙ্ঘর্ষ চলছে গত বছরের মার্চ মাস থেকে. বিভিন্ন তথ্য অনুযায়ী, এ সময়ে দেশে নিহত হয়েছে ২০ থেকে ৩০ হাজার মানুষ. দেশের কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করছে যে, তারা সম্মুখীন হচ্ছে অস্ত্রে সুসজ্জিত জঙ্গীদের প্রতিরোধের, যাদের বিদেশ থেকে সাহায্য দেওয়া হচ্ছে.