জাপানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় শুক্রবার এক নির্দেশনামা জারি করেছে, যাতে উত্তর কোরিয়ার রকেট ধ্বংস করার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে, যদি তা ক্ষেপণের পরে দেশের নিরাপত্তার জন্য বিপদ সৃষ্টি করে. নির্দেশনামায় বলা হয়েছে যে, উড়ানের সময় রকেট যদি ভেঙ্গে পড়ে এবং তার অংশগুলি যদি জাপানের ভূভাগে পড়ে, তাহলেও ঐ অংশগুলি ধ্বংস করা হবে. জাপান ইতিমধ্যে নিজের রকেট-বিরোধী ও আকাশ-প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে বর্ধিত প্রস্তুতির অবস্থায় এনেছে, জানিয়েছে স্থানীয় প্রচার মাধ্যম. জানানো হয়েছে যে, উত্তর কোরিয়া ১০ই থেকে ২২শে ডিসেম্বরের মধ্যে স্পুতনিক সহ রকেট ক্ষেপণের পরিকল্পনা করছে. দক্ষিণ কোরিয়ার বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে, যদি রকেটে জ্বালানী ভরা হয় আসন্ন ছুটির দিনগুলিতে, তাহলে আগামী সপ্তাহের বুধবারের মধ্যে ক্ষেপণ বাস্তবায়িত হবে. জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োসিহিকো নোদা সোমবার সকাল থেকে দিনের পুরো প্রথমার্ধ সরকারী বাস-ভবনে থাকবেন উত্তর কোরিয়ার রকেট উড়ান সম্পর্কে কোনো অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতির ক্ষেত্রে.