মিশরের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলি জানাচ্ছে, যে দেশে উদ্ভূত পরিস্থিতি স্বাভাবিকীকরনের উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রপতি মহম্মদ মুর্সির তরফ থেকে দেওয়া জাতীয় সংলাপ শুরু করার প্রস্তাবকে তার বিরোধীরা অবিশ্বাসের চোখে দেখছে. আন্দোলনকারীরা, যারা বিপ্লব করে হোসনি মুবারককে ক্ষমতাচ্যুত হতে বাধ্য করার ক্ষেত্রে বিশাল ভুমিকা পালন করেছিল, তারা ‘ফেসবুকে’ তাদের নিজস্ব সাইটে ঘোষনা করেছে, যে শুক্রবারে পরিকল্পিত প্রতিবাদী সমাবেশ হবে মুর্শির জন্য লাল কার্ড. বিরোধী শক্তিগুলোকে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্যে গঠিত ‘জাতির উদ্ধারের ফ্রন্ট’ আপাততঃ মুর্সির আহ্বানকে আমল দিচ্ছে না.

মুর্সি গতরাতে রাষ্ট্রীয় দূরদর্শনে সরাসরি বক্তব্য পেশ করে সংশ্লিষ্ট সবপক্ষকে শনিবার পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার জন্য সংলাপ শুরু করার আহ্বান জানিয়েছেন. একই সাথে তিনি বিরোধীদের চাপের মুখে একখন্ড নিজস্ব জমিও ছেড়ে দিতে রাজি নন. মুর্সির ভাষন শেষ হওয়ার পরে মার্কিনী রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা টেলিফোনে তার সাথে যোগাযোগ করেন. ওবামা কোনো প্রাথমিক শর্ত ছাড়াই বিরোধীপক্ষের সাথে সংলাপ শুরু করার আহ্বান জানিয়েছেন তাকে. ওবামা বলেছেন – “মিশরের সব রাজনৈতিক নেতার উচিত তাদের অনুগামীদের বোঝানো, যে হিংসাত্মক কার্যকলাপকে বরদাস্ত করা যাবে না”.

0মিশরে উত্তেজনা চরমে পৌঁছেছে, ৭ জন ইতিমধ্যেই নিহত হয়েছে. স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলি জানিয়েছে, যে গতরাতে যে ভবনে ‘মুসলমান ভ্রাতৃত্ব’ পার্টির সদর-দপ্তর অবস্থিত, সেখানে আগুন লাগে.