সিরিয়ায় রাষ্ট্রীয় ফৌজ বিরোধীদের বিরূদ্ধে রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ করবার জন্য তৈরি হচ্ছে ও শাসক কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে সবুজ-সংকেতের অপেক্ষায় আছে. মার্কিনী সরকারী প্রতিনিধিদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য অনুসারে এন.বি.সি. টেলিচ্যানেল এই সংবাদ প্রচার করেছে. সূত্রগুলি জানিয়েছে, যে এই মুহুর্তে জারিন গ্যাসের অনুরূপ নতুন বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে এয়ারবোম ভর্তি করা হচ্ছে, যেগুলি সিরিয়ার বিরোধীপক্ষের বিরূদ্ধে সামরিক হামলার সময় রকেট থেকে ছোঁড়া হতে পারে.

মার্কিনী বিদেশসচিব হিলারি ক্লিনটন বুধবার বলেছেন, যে তার দেশ ও তাদের মিত্র দেশগুলি বাশার আসাদের শাসনব্যবস্থা রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ করলে তার বিরূদ্ধে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখাবে.

ব্রাসেলসে গত মঙ্গলবার রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ ন্যাটো জোট-রাশিয়ার বৈঠকের পরে বলেছেন, যে রাশিয়ার জন্য সিরিয়ায় রাসায়নিক অস্ত্রের প্রয়োগ কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়. তিনি বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন, যে রাশিয়া সিরিয়ায় রাসায়নিক অস্ত্রশস্ত্রের স্থানবদলের গতিবিধির প্রক্রিয়ার উপর কড়া নজর রেখে চলেছে ও পশ্চিমী দেশগুলির সাথে সে সম্পর্কে তথ্য বিনিময় করছে.

লাভরোভ একইসঙ্গে বলেছেন, যে রাশিয়াকে প্রত্যেকবার এই বলে আশ্বাস দেওয়া হয়, যে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের কোনো পরিকল্পনা তাদের নেই বা ভবিষ্যতেও তা প্রয়োগ করা হবে না.