অন্যান্য কাজের সঙ্গে জলদস্যূ মোকাবিলা নিয়ে একত্রিত ভাবে কাজ করাকেও "ইন্দ্র – ২০১২" মহড়ায় রাখা হতে চলেছে. এই বিষয়ে বুধবারে রিয়া নোভস্তি সংস্থাকে রাশিয়ার প্রশান্ত মহাসাগরীয় নৌবহরের বিশাল ডুবোজাহাজ বিধ্বংসী জাহাজ মার্শাল শাপোশনিকভের ক্যাপ্টেন আন্দ্রেই কুজনেত্সভ জানিয়েছেন. এই প্রশিক্ষণের সময়ে কামান থেকে গোলা বর্ষণ, একত্রিত ভাবে চলাফেরা করার মহড়া ও আরও অনেক কাজ করা হবে বলে সংস্থাকে তিনি জানিয়েছেন. ত্রাণের গাধাবোট আলতাউ, ট্যাঙ্কার ইরকুত ও মার্শাল শাপোশনিকভ বুধবারে ভারতের মুম্বাই বন্দরে এক মৈত্রী সফরে পৌঁছেছে. এরা ২ রা ডিসেম্বর পর্যন্ত এখানে থাকবে, তারপরে ইন্দ্র – ২০১২ মহড়াতে অংশ নেবে ভারতীয় নৌবাহিনীর জাহাজ গুলির সঙ্গেই. তারপরে রাশিয়ার প্রশান্ত মহাসাগরীয় নৌবহরের জাহাজ গুলি এডেন উপসাগরে পাহারা দিতে যাবে, পরে পরিকল্পনা রয়েছে থাইল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, জিবুতি ও সিশেইলস্ দ্বীপপূঞ্জ সফর করে ফিরবে.