ভোলগা নদীর অপর পারে কাজান শহরে এই কেন্দ্র খোলা হল. এটি দেশে আমরা যে ১১টি কেন্দ্র খুলতে চলেছি, তারই প্রথম কেন্দ্র, - এই কথা বলেছেন রসন্যানো কোম্পানীর প্রধান আনাতোলি চুবাইস. তাঁর কথায় তাতারস্থান দেশের এক অবিসংবাদিত উদ্ভাবনী উন্নতির কেন্দ্র. ন্যানো টেকনলজি কেন্দ্র কাজান শহরে তিনটি প্রধান দিক নিয়ে কাজ করবে – পলিমার ও কম্পোজিট পদার্থ নিয়ে, বায়ো টেকনলজি ও ফার্মাসিউটিক্যালস নিয়ে. কেন্দ্রের প্রধান কাজ হবে – উদ্ভাবনী প্রযুক্তি একেবারে শুরুর সময় থেকে বাণিজ্যিক করা ও যারা এই বিষয়ে কোন রকমের আবেদন করবেন, তাদের সমস্ত রকমের পরিষেবা দেওয়া – মূল্যায়ণ থেকে শুরু করে ক্ষুদ্র শিল্পে বিনিয়োগ করা পর্যন্ত.