বিচার বিভাগের উপর রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ মুরসির `অবৈধ` হস্তক্ষেপের অভিযোগ তুলে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে যোগ দেওয়ার জন্য সাধারণ নাগরিকদের আহবান জানিয়েছেন মিশরের বিচারকরা। বিচারকদের এক জরুরি সভায় শনিবার এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। দেশটির সর্বোচ্চ বিচার পরিষদ এক বিবৃতিতে বলেছে, “প্রেসিডেন্টের এই অবৈধ হস্তক্ষেপ বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ক্ষুণ্ন করবে”।

মিশরে নতুন সংবিধান ও পার্লামেন্টের কার্যক্রম শুরু না হওয়া পর্যন্ত মুরসি নিজের ক্ষমতা ধরে রাখবেন ।

বৃহস্পতিবার একটি অধ্যাদেশ জারির মাধ্যমে পার্লামেন্টের উপর বিচার বিভাগের সব রকম হস্তক্ষেপের ক্ষমতা বিলোপ করে নিজের ক্ষমতা বাড়িয়ে নেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মুরসি। এদিকে বিচারকদের এক বিবৃতিতে বলা হয় যে, মুরসি নিজের এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসলে মঙ্গলবার থেকে দেশের সব বিচার কার্যালয়ে বিক্ষোভ করবেন আইনজীবিরা ।

উল্লেখ্য, রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ মুরসির অধ্যাদেশ ঘোষণার পরই মিশরজুড়ে ব্যাপক বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। কয়েক হাজার বিক্ষোভকারীরা কায়রোর তাহরির স্কোয়ারে মুরসিবিরোধী আন্দোলনে জড়ো হয়।