হোসনি মুবারকের ছেলে আলিয়া এই কাজ করেছে বলে বৃহস্পতিবারে আল-ওয়তন নামের খবরের কাগজে প্রকাশিত হয়েছে. তাকে আটকে রাখা হয়েছে দুর্নীতির ও আর্থিক কারবারে জুয়াচুরি করার অভিযোগে. আলিয়া মুবারক জেলের কর্তৃপক্ষকে ও ইজিপ্টের এই মামলা সংক্রান্ত আদালতের অধ্যক্ষকে লিখেছে যে, তার এক সময়ে তৈরী করা দাতব্য তহবিল থেকে প্রত্যেক মৃত শিশুর পরিবারকে ২৫ হাজার ইজিপ্টের পাউণ্ড ও প্রত্যেক আহত শিশুর পরিবারকে ১২ হাজার পাউণ্ড করে অর্থ দিতে স্বীকৃতী দেওয়ার. গামাল ও আলিয়া মুবারককে গ্রেপ্তার করার পরে মুবারক বংশের সকলের ব্যাঙ্ক ও আর্থিক লেনদেনে সরকার নিষেধ জারী করেছে. এখন শুধু কমিটি এই কাজ করতে পারে. গত শনিবারে ইজিপ্টে দক্ষিণে আস্যুত রাজ্যের কাছে এক সড়ক দুর্ঘটনায় একটি যাত্রীবাহী রেলগাড়ী সরাসরি একটি স্কুলের বাসে ধাক্কা মারে. ফলে ৫০ জন শিশু ও চালক সহ দুই জন প্রাপ্তবয়স্ক লোকের মৃত্যু হয়েছে.