ইরানের বিরুদ্ধে বল প্রয়োগের হুমকি তেহেরানের সাথে আলাপ-আলোচনার প্রক্রিয়া ক্ষুণ্ণ করে. এ সম্বন্ধে বলেছেন রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই রিয়াবকোভ ব্রাসেলসে আন্তর্জাতিক মধ্যস্থ “ছয় দেশের” শেষ বৈঠকের ফলাফলের ভিত্তিতে. একই সঙ্গে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন এ ব্যাপারে যে, ধারাবাহিকতা এবং পারস্পরিকতার মূলনীতি, যার পক্ষে মত প্রকাশ করছে রাশিয়া, ইরানের সাথে আলাপ-আলোচনায় মুখ্য দৃষ্টিভঙ্গী হিসেবে অনুমোদিত হয়েছে. উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কথায়, “পারস্পরিকতার মাত্রা হিসেব না করলে”, পরস্পরের দিকে অংশগ্রহণকারীদের পদক্ষেপ বিবেচনায় না রাখলে, কোনো ফল পাওয়া যাবে না. কূটনীতিজ্ঞ উল্লেখ করেন যে, জেনে-শুনে পরিস্থিতিকে খাদের দিকে ঠেলে দেওয়া – দায়িত্বহীনতার পরিচয় এবং তার পরিণতি হিসেব করা কঠিন. রিয়াবকোভ যোগ করে বলেন যে, এমন অবস্থা বিশেষ করে বিপজ্জনক নিকট প্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকায় বর্তমানের অস্থিতিশীল পরিবেশে, যখন সঙ্ঘর্ষ দেখা দিচ্ছে একটার পর একটা. সদ্য শেষ হওয়া পরামর্শ বৈঠকের ফলাফলের কথায় এসে রিয়াবকোভ উল্লেখ করেন যে, মোটামুটিভাবে এ সাক্ষাত্ ছিল “উপকারী এবং কার্যকরী”. ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে ছয়পাক্ষিক আলাপ-আলোচনায় অংশগ্রহণ করছে রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, গ্রেট-বৃটেন, চীন এবং জার্মানি.