রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাইটে প্রকাশিত পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভের ইন্টারভিউ প্রকাশিত হয়েছে, তাতে তিনি পাকিস্তানের ভূভাগে লক্ষ্য-স্থলের উপরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ড্রোন বিমানের আঘাত হানা বেআইনী বলে অভিহিত করেছেন. প্রচার মাধ্যমের খবর অনুযায়ী, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বহু বার ড্রোন বিমান ব্যবহার করেছে পাকিস্তানের ভূভাগে “তালিবদের” অনুমিত ঘাঁটি এবং “আল-কাইদার” জঙ্গীদের উপর আঘাত হানার জন্য. এ প্রয়োগ-নীতি পাকিস্তান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মাঝে সম্পর্ককে তীব্র করে তুলেছে. ইন্টারভিউতে লাভরোভ তাছাড়া রুশ-পাক বাণিজ্যিক-অর্থনৈতিক সহযোগিতা পুনর্স্থাপনের পক্ষে মত প্রকাশ করেছেন. রাশিয়ার পক্ষ “বহুকাল ধরেই পাকিস্তানের সাথে যথেষ্ট স্থিতিশীল সম্পর্ক রেখে আসছে”. মন্ত্রী উল্লেখ করেন, “আর তা শুরু হয়েছে ইস্লামাবাদ এবং ওয়াশিংটনের মাঝে মতভেদ শুরু হওয়ার বহুকাল আগে থেকে”. তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, রাশিয়া পাকিস্তানের সাথে সম্পর্ক বিকাশ করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে নয়, বরং “সহযোগিতা পুনরারম্ভের স্বার্থেই, যা যথেষ্ট বহুরূপী ছিল”. তিনি তাছাড়া জোর দিয়ে বলেন যে, “পাকিস্তান – একটি মুখ্য দেশ, যাকে বাদ দিয়ে আফগানিস্তানে স্থিতিশীলতায় সহায়তা করার বিদেশী প্রচেষ্টার প্রশ্ন মীমাংসা করা সম্ভব নয়”. লাভরোভ বলেন, “আমরা সর্বোপায়ে আফগান-পাক সংলাপে প্রেরণা দিচ্ছি, যা বিভিন্ন মাত্রার প্রখরতা ও ফলপ্রসূতা সত্ত্বেও ছিন্ন তো হচ্ছে না”.