চীনে ক্ষমতাসীন চীনা কমিউনিস্ট পার্টির অষ্টাদশ কংগ্রেস বৃহস্পতিবার সকালে শুরু হয়েছে বেজিংয়ে. এ কংগ্রেসে পার্টির নতুন নেতৃবৃন্দ নিযুক্ত করা হবে, আর তাছাড়া, আগামী পাঁচ বছরের জন্য চীনা কমিউনিস্ট পার্টির নীতি নিরূপণ করা হবে. কংগ্রেসের উদ্বোধনী সভায় রিপোর্ট দেন চীনা গণ-প্রজাতন্ত্রের সভাপতি হু জিনতাও. তিনি বলেন যে, দেশের তথা বিশ্ব অর্থনীতির বিকাশে পরিবর্তন অনুযায়ী চীনের দেশে অর্থনৈতিক বৃদ্ধির নতুন মডেল গঠনের প্রক্রিয়া দ্রুতীকরণ করা উচিত্. পৃথিবীতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরে দ্বিতীয় স্থানে অবস্থিত চীনের অর্থনীতি বৃদ্ধির গতি সম্বন্ধে উদ্বেগ বাড়ছে তার বৃদ্ধির হার মন্থর থাকা উপলক্ষে. ২০১২ সালের তৃতীয় ত্রৈমাসিকে চীনের মোট আভ্যন্তরীন উত্পাদন বৃদ্ধির হার কমেছে ৭.৪ শতাংশ পর্যন্ত, যা ২০০৯ সালের প্রথম ত্রৈমাসিক থেকে শুরু করে সবচেয়ে খারাপ সূচক. হু জিনতাও বলেন যে, চীনের সুনিশ্চিত করা উচিত, যাতে চীনের অর্থনীতির ব্যক্তিগত শাখা সফলভাবে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানগুলির সাথে সফলভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারে. হু জিনতাও বলেন, চীনে ২০২০ সাল নাগাদ মোট আভ্যন্তরীন উত্পাদন এবং মাথাপিছু আয় ২০১০ সালের তুলনায় দু গুণ বাড়া উচিত্. তাছাড়া, হু জিনতাও কংগ্রেসে বলেন যে, দেশের স্বার্থ সুনিশ্চিত করার জন্য চীনকে সামুদ্রিক শক্তিতে পরিণত করা প্রয়োজন. চীন পূর্ব চীনা সাগর এবং দক্ষিণ চীনা সাগরে দ্বীপগুলির সত্ত্বাধিকার সম্পর্কে একসঙ্গে কয়েকটি রাষ্ট্রের সাথে বিতর্ক চালাচ্ছে. বিশেষ করে তীব্র বিরোধ দেখা দিয়েছে জাপানের সাথে জ্বালানী সম্পদে সমৃদ্ধ দিয়াওইউইদাও (সেনকাকু) দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে, জাপানের কর্তৃপক্ষ ব্যক্তিগত মালিকের কাছ থেকে দ্বীপগুলি কিনে নেওয়ার পরে. এ বিরোধ তীব্র হয়ে ওঠার পটভূমিতে চীন সেপ্টেম্বর মাসে প্রথম চীনা বিমানবাহী জাহাজ – “লিয়াওনিন” জাহাজের নির্মাণ শেষ করার কথা ঘোষণা করেছে, যা “ভারিয়াগ” নামে সোভিয়েত বিমানবাহী ক্রুজারের ভিত্তিতে তৈরি হয়েছে. নৌবাহিনীর বিকাশ ছাড়া চীন সক্রিয়ভাবে সাগরের গভীরতার আত্তিকরণ করছে.