ইউরোপ ও এশিয়াকে যুক্ত করা গ্রন্থি হিসেবে রাশিয়া নিজের ক্ষমতার দ্বারা উভয় মহাদেশের অর্থনৈতিক বিকাশে সাহায্য করতে পারে. এ সম্বন্ধে "রেডিও রাশিয়াকে" প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন রাশিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী আর্কাদি দ্ভোরকোভিচ. লাওসের রাজধানী ভিয়েনতিয়েনে যে “এশিয়া-ইউরোপ” শীর্ষ সম্মেলন চলছে তাতে তিনি রাশিয়ার প্রতিনিধিদলের সদস্য. দৃষ্টান্ত হিসেবে তিনি ট্রান্স-সাইবেরীয় রেলপথের ক্ষমতা বৃদ্ধির প্রকল্পের কথা উল্লেখ করেন, যে রেলপথের মাধ্যমে দূর প্রাচ্য ও পূর্ব এশিয়া থেকে ইউরোপে মালপত্র নিয়ে যাওয়া ও নিয়ে আসা যায়. এ যাত্রাপথ বিদ্যমান সব পথের মধ্যে সবচেয়ে লাভজনক, মনে করেন দ্ভোরকোভিচ. এজন্য রাশিয়ার দূর প্রাচ্যের বন্দরগুলির পুনর্গঠন করা হচ্ছে. বিশেষ করে ভ্লাদিভস্তোকের, যা বৃহত্তম একটি বন্দর হিসেবে সিঙ্গাপুরের সাথে ফলপ্রসূভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবে. উপ-প্রধানমন্ত্রী জ্বালানীর ক্ষেত্রে সহযোগিতার কথা বিশেষ করে উল্লেখ করেন. তাঁর কথায়, রাশিয়া এশিয়া অঞ্চলকে তার তেল ও গ্যাসের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বাজার হিসেবে বিবেচনা করে. রাশিয়া বিধানিকভাবে বাধ্যতামূলক মান গ্রহণের প্রস্তাব করেছে, যা হাইড্রো-কার্বন কাঁচামালের চাহিদা, প্রস্তাব ও ট্রানজিটের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করবে.