উদ্ধারকারী জাহাজ রুবিনের নাবিকরা অখোত সমুদ্রে এমন কিছু দেখতে পেয়েছেন, যা গত সপ্তাহে হারিয়ে যাওয়া জাহাজ আমুরস্কায়া হতে পারে, খবর দিয়েছে রাশিয়ার বিপর্যয় নিরসন দপ্তর থেকে. প্রথমে বে – ২০০ বিমান এক টহলের সময়ে জলে তেল ভাসতে দেখে. পরে রুবিন জাহাজ এই জায়গায় উপস্থিত হয়ে পর্যবেক্ষণ শুরু করলে, এই জায়গায় সত্যই তেল ভাসছে দেখতে পেয়ে এক শব্দ নির্ণয় যন্ত্র দিয়ে পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে যে, জলের তলায় ২৫ মিটার গভীরে কিছু একটা রয়েছে, যা হারিয়ে যাওয়া জাহাজ হতেই পারে. জাহাজের কোন ভাঙা অংশ জলে ভাসতে দেখতে পাওয়া যায় নি. এখানে প্রবল স্রোতের জন্য কাজ করা খুবই কঠিন. যতক্ষণ না নাবিকরা এই জলে ডোবা জিনিষ ভাল করে খুঁটিয়ে না দেখছেন, ততক্ষণ কোন কিছুই বলা সম্ভব নয়. গত রবিবারে অখোত সমুদ্রে শান্তার দ্বীপপূঞ্জের কাছে আমুরস্কায়া জাহাজ হারিয়ে গিয়েছে, সেই জাহাজে নয়জন নাবিক ও প্রায় ৭০০ টন সোনা সমেত খনিজ ছিল.