ইউরোসঙ্ঘের পররাষ্ট্র নীতি সংক্রান্ত হাই-কমিশনার ক্যাথ্রিন অ্যাশটন বলেছেন যে, ইরানের পারমাণবিক সমস্যা নিয়ে আলাপ-আলোচনায় অগ্রগতির আশা করেন. সারায়েভো-তে এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন যে, ইরানের পারমাণবিক সমস্যা নিয়ে আলাপ-আলোচনায় মধ্যস্থ “ছয় দেশের” (রাষ্ট্রসঙ্ঘের স্থায়ী সদস্য দেশগুলি ও জার্মানি) মন্ত্রীদের সমর্থনে সম্ভাব্য সবকিছুই করবেন, যাতে আলাপ-আলোচনায় অগ্রগতি অর্জিত হয়. একই সঙ্গে তিনি যোগ করে বলেন যে, তাঁর মতে, এ সমস্যার মীমাংসার দিকে ইউরোসঙ্ঘের এগুনো উচিত দু দিক থেকে : চাপ দেওয়া এবং আলাপ-আলোচনা চালানো. তাঁর কথায়, সম্প্রতি ইরানের বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞা প্রবর্তিত হয়েছে, এখন ইউরোসঙ্ঘ আলাপ-আলোচনায় অগ্রগতির পথ অনুসন্ধান করতে চায়. অ্যাশটন আবার বলেন যে, “শিগগিরই” ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব সৈয়দ জালিলি-র সাথে সাক্ষাত্ করতে চান, যিনি “ছয় দেশের” সাথে আলাপ-আলোচনায় ইরানী প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব করছেন.