0দুই সন্তানের জননী এক নারী ফ্রান্সের দক্ষিণের এক শহরে স্থানীয় মেয়রের দপ্তরে নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে একই সাথে মেয়রকে নিয়ে আত্মঘাতী হতে গিয়েছিলেন. জানানো হয়েছে যে, তিনি এর আগেও মেয়রের ভবনের সাথে নিজেকে শৃঙ্খল দিয়ে বেঁধে রেখে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করেছিলেন. এই নারীর সংসার চলে সামাজিক অনুদানের উপরে নির্ভর করে. বর্তমানে তাঁর মনে হয়েছিল য়ে, প্রশাসনের উচিত্ তাঁকে বেশী করে অর্থ দেওয়া. এই বারে তিনি মেয়রের সাথে দেখা করার জন্য নাম লিখিয়েছিলেন ও দেখা করতে এসেছিলেন সহজ দাহ্য নাইলন জাতীয় কাপড়ের পোষাক পরে. ঘরে ঢুকেই তিনি নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেন ও মেয়রকে জাপটে ধরে ফেলার চেষ্টা করেন. ভীত মেয়র জান পিয়ের আল্লোসেরি দৌড়ে ঘর ছেড়ে পালিয়ে যান. তার পরে নিরাপত্তা কর্মীরা আগুন নিভিয়ে ফেলে. আজেরবুক শহরের মেয়রের আঘাত ও শরীরে পুড়ে যাওয়ার পরিমান সামান্য. মহিলাই বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বেশী, শরীরের সামনের অংশ অনেকটাই পুড়ে গিয়েছে, তাঁকে হেলিকপ্টারে চাপিয়ে লিল শহরের অগ্নি দহন সংক্রান্ত চিকিত্সা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়েছে. সংবাদ মাধ্যমে মহিলার এই কাজের কারণ নিয়ে কিছু জানানো হয়নি, শুধু বলা হয়েছে যে, তিনি কোন পথ খুঁজে না পেয়ে এই কাজ করেছেন.