শুক্রবারে ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লী শহরে রাশিয়ার রাজধানী মস্কো সপ্তাহ শুরু হয়েছে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় চেম্বার অর্কেস্ট্রা মস্কো কুশলীদের কনসার্ট দিয়ে, পরিচালনা করছেন বিখ্যাত অর্কেস্ট্রা পরিচালক ভ্লাদিমির সিমকিন. এই দল বাজিয়েছে যোহানেস ব্রামসের “পাঁচ নম্বর হাঙ্গেরীয় নৃত্য” ও অ্যাস্টর পিয়াতশোল্লির “লাভ ট্যাঙ্গো” ইত্যাদি বিখ্যাত সঙ্গীত. এঁরা ভারতে প্রথমবার অনুষ্ঠান করছেন.

এই অর্কেস্ট্রার একজন স্রষ্টা গ্রেগোরী কভালেভস্কি মনে করেন যে, “এই কনসার্ট দুই রাজধানীর মধ্যে বন্ধুত্বের আরও একটি অধ্যায় এবং প্রসারিত সাংস্কৃতিক সহযোগিতার নতুন প্রারম্ভের সূচনা করতে পারে”. তিনি বলেছেন যে, “আমরা ভারতে অনুষ্ঠান করতে পেরে খুবই খুশী আর আবারও সানন্দে এখানে আসতে পারি”.

শনিবারে দিল্লীর কনোট প্লেস এলাকার এক বৃহত্তম কেন্দ্রীয় উদ্যানে বড় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে, এখানে মস্কোর রাষ্ট্রীয় অ্যাকাডেমিক ড্যান্সের থিয়েটার থেকে “গ্ঝেল” নামের দল নাচবে. এই মস্কো সপ্তাহ অনুষ্ঠানে আরও হবে দাবার টুর্নামেন্ট ও বিখ্যাত পোষাক নির্মাতা ভালেন্তিন ইউদাশকিনের নতুন সব পোষাকের প্রদর্শনী. এই সব মিলিয়েই মস্কো সপ্তাহ ভারতের সাংস্কৃতিক জীবনের এক উল্লেখযোগ্য ঘটনায় পরিণত হতে চলেছে.

ভারতে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার কাদাকিন বলেছেন যে, “এই ধরনের অনুষ্ঠান দুই দেশের মধ্যে অভূতপূর্ব পারস্পরিক সম্পর্কের গুণকে প্রকাশ করে ও এই ঘটনা সহযোগিতাকে আরও উচ্চ স্তরে উত্তীর্ণ করবে. ভারত ও রাশিয়ার মধ্যে মস্কো এবং নয়া দিল্লীর সম্পর্ক বহু দশকের বন্ধুত্বের বন্ধনে আবদ্ধ রয়েছে, তাই মস্কো সপ্তাহ - এটা দুই দেশের রাজধানীর মধ্যে সম্পর্কের বিষয়ে এক পুনরুজ্জীবন. এত বেশী সংখ্যক অংশগ্রহণকারী ও এত দিন ধরে মস্কো নিয়ে উত্সব ভারতে এর আগে কখনও কেউ দেখেন নি”.