১৯৯৮ সাল থেকে তার সমস্ত ফলাফল হিসাবের বাইরে করে দেওয়া ও সমস্ত উপাধি কেড়ে নেওয়া হয়েছে. এই ভাবেই ডোপিংয়ের শাস্তি মিলেছে আমেরিকার সাইকেল চালকের, তার সাতবার এই প্রতিযোগিতায় জয়ের কথাও প্রতিযোগিতার ইতিহাস থেকে মুছে দেওয়া হয়েছে, কারণ সংগঠন জানিয়েছে যে, ঐ আমেরিকার খেলোয়াড়দের নিষিদ্ধ ওষুধ ব্যবহার করার সমস্ত রকমের প্রমাণ এখন তাদের কাছে রয়েছে ও তা নিয়ে আর্মস্ট্রংয়ের দোষ প্রমাণিত হওয়ার কথা জানা ছিল ২০১২ সালের আগষ্ট মাসের শেষ থেকেই. কিন্তু সেই মুহূর্তে আমেরিকার এই খেলোয়াড় তার খেলাধূলার জীবন শেষ করেছিলেন. চিন ও আমেরিকার খেলোয়াড়দের উপরে এর পর থেকে সারা বিশ্বের লোকরা নজর করছেন, তাদের খেলাধূলার সাফল্যের পিছনে কি রয়েছে, তা অবশ্যই ধরা পড়বে.