সিরিয়ার তুরস্কের জনগণের সাথে কোনো সমস্যা নেই, তা রয়েছে তুরস্কের সরকারের সাথে, বলেছেন তুরস্কের রাষ্ট্রপতি বশার আসদ তুরস্কের “আইদীনলীক” পত্রিকাকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে, যা প্রকাশিত হয়েছে বৃহস্পতিবার. আসদ জোর দিয়ে বলেন যে, সিরিয়া তুরস্কের প্রতি কোনো শত্রু বাব প্রকট করে নি, সর্বদা ভ্রাতৃপ্রতিম ব্যবহার করেছে. পত্রিকাটি সিরিয়ার রাষ্ট্রপতির উক্তি উদ্ধৃতি করে লিখেছে, “আমাদের সমস্যা দেখা দিয়েছে তুরস্কের সরকারের সাথে, যার স্থিতির জন্য আমরা সীমানায় সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছি”.জানানো হয়েছে যে, তুরস্ক ও সিরিয়ার মাঝে সম্পর্ক অতি তীব্র হয়ে ওঠে ৩রা অক্টোবরের সীমান্ত ঘটনার পরে. তখন তুরস্কের আকচাকালে বসতি-কেন্দ্রে প্রতিবেশী ভূভাগ থেকে বর্ষিত আর্টিলারীর গোলা এসে পড়েছিল আর তার বিস্ফোরণে পাঁচজন নিহত হয়েছিল. এ ঘটনার উত্তরে তুরস্কের পার্লামেন্ট সরকারকে সীমান্ত-পারে, সেই সঙ্গে সিরিয়াতেও সামরিক অভিযানের ম্যান্ডেট দিয়েছে এক বছরের জন্য. তুরস্কের পার্লামেন্টের সিদ্ধান্ত সম্বন্ধে মন্তব্য করে সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি উল্লেখ করেন যে, যুদ্ধ ঘোষণার জন্য তুরস্কের একটিও কারণ নেই. আসদ এ ঘটনাকে প্ররোচনা বলে অভিহিত করেন. তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, সরকারবিরোধী শক্তির সাথে বিরোধিতার প্রথম দিনগুলিতেই দামাস্কাস সতর্ক করে দিয়েছিল যে, এ ধরণের প্ররোচনা বাদ দেওয়া যায় না. আসদ বলেন যে, সীমান্ত ঘটনা মীমাংসা করা উচিত্ আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে. সিরিয়ার রাষ্ট্রপতির মতে, সরকারী আঙ্কারার সাথে সংলাপের অভাবের জন্য তাঁর দেশ দায়িত্ব গ্রহণ করতে পারে না. আসদ জোর দিয়ে বলেন, “দু দেশের মাঝে আলাপ-আলোচনার জন্য মাধ্যমের অভাব দু দেশের সম্পর্কের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে”. তিনি আরও জানান যে, আকচাকালে বসতি-কেন্দ্রের ঘটনার তদন্ত চলছে.