তাতারস্তানের রাজধানী কাজান রাশিয়ায় এই প্রথম শহর, যে ২০১৬ সালে স্কুল শিক্ষার্থীদের আন্তর্জাতিক আই.টি. প্রতিযোগিতার আয়োজন করবে. অলিম্পিক কমিটি আহুত প্রতিযোগিতায় কাজান জাপান ও আজারবাইজানের প্রতিদ্বন্দীদের পরাজিত করেছে.

‘রেডিও রাশিয়া’কে দেওয়া সাক্ষাতকারে তাতারস্তানের আই.টি.কেন্দ্রের অধ্যক্ষা তাতিয়ানা কামালিদ্দনভা বলছেন, যে কাজানের আবেদনপত্র ছিল সেরা.

২০১৩ সালে কাজান শহরে সারাবিশ্বের ছাত্রদের ক্রীড়া –ইউনিভার্সিয়াড অনুষ্ঠিত হবে, আর তাই আমাদের পরিকাঠামো পুরোপুরি প্রস্তুত. আমরা যোগদানকারীদের ইউনিভার্সিয়াডের ভিলেজে থাকার প্রস্তাব দিয়েছি. আমাদের অসাধারন আই.টি. পার্ক আছে, যেখানে এবছরে বসন্তকালে সর্ব রাশিয়ান অলিম্পিকের আয়োজন করা হয়েছিল. আমাদের শহর এই স্তরের প্রতিযোগিতা সংগঠন করার জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত.

তুলনা করে বলতে পারি, যে ইতালির লম্বারদিয়ায় গত অলিম্পিয়াডে ক্রীড়াবিদদের সাধারন ক্যাম্পে রাখা হয়েছিল, যেখান থেকে ক্রীড়াক্ষেত্রে পৌঁছাতে তাদের কমপক্ষে ৪০ মিনিট সময় লাগতো. আর এখানে আরামদায়ক বাসভুমি, সব ক্রীড়াক্ষেত্র পাশাপাশি, একই জায়গায়. আবার শুনুন তাতিয়ানা কামালিদ্দনভার মন্তব্য.

নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য সংরক্ষনের জন্য আমাদের আভ্যন্তরীন পরিকাঠামো পুরোপুরি তৈরী. তাছাড়া সব ক্রীড়াক্ষেত্র ভিলেজের সংলগ্ন. ওখানে সুইমিং পুল, টেনিস অ্যাকাডেমি বিশাল সব কোর্ট নিয়ে. গোটা এলাকায় পাহারা দেওয়া হয়. এককথায় বিদেশী অতিথিদের জন্য সবকিছু তৈরী.

রাশিয়ার শহরটির জেতবার আরও একটা কারণ আছে. অল্পবয়স্ক আই.টি. বিশেষজ্ঞদের মধ্যে রাশিয়া এখন বিশ্বে প্রথম সারিতে. এই বছরে ইতালীর লম্বার্দিয়িতে ৮৭টি দেশের ৪০০ জন প্রতিদ্বন্দীর মধ্যে যোগদানকারী ৪ জন রাশিয়ানই স্বর্ণপদক জিতেছে. পদকের তালিকায় আমরা চীনাদের থেকে সামান্য পেছিয়ে থাকলেও স্বর্ণপদকের সংখ্যায় ওদের সমান সমান ছিলাম. সর্বরাশীয় অলিম্পিয়াডের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ভ্লাদিমির কিরুখিন ব্যাখ্যা করে বলছেন, যে এইমুহুর্তে আমরা চীনাদের সাথে আই.টি.তে সবচেয়ে অগ্রগণ্য ও আমাদের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি প্রতিদ্বন্দিতা হয়.

আমরা সবসময়েই ওদের সাথে লড়ি, অন্যান্য দেশগুলি খানিকটা পেছিয়ে আছে. বিশ্বে আই.টি. বিভাগে রাশিয়া উচ্চমর্যাদাসম্পন্ন. যখন প্রশ্ন উঠেছিল, যে রাশিয়ার কোন শহরে অলিম্পিয়াডের আয়োজন করা হবে, তখনই বেছে নেওয়া হয়েছিল কাজানকে, কারণ ঐ শহর রাশিয়ায় আই.টির দিক থেকে অন্যতম সেরা.

রাশিয়ার আগে স্কুলপড়ুয়াদের অলিম্পিয়াড হবে ২০১৩ সালে অস্ট্রেলিয়ায়, ২০১৪ সালে চীনে আর ২০১৫ সালে কাজাখস্তানে.