সিরিয়ার দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ শহর খালেবের (আলেপ্পো) পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ফেলেছে দেশটির সেনাবাহিনী. এখানেই অস্ত্রধারী দলগুলোর শীর্ষ ঘাঁটি অবস্থান নিয়েছিল. সিরিয়ার বার্তাসংস্থা সানা জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে ভাড়াটে তুর্কী যোদ্ধাও রয়েছেন. সেনাবাহিনীরা বিরোধী দলের একাধিক পণ্য পরিবহন গাড়ি ও যাতায়াতের বিকল্প পথ ধ্বংস করে দিয়েছে. এদিকে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুর্কী সীমান্তে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে. অন্যদিকে লিবিয়ার সাথে সীমান্তবর্তী শহর এল-কুসেইর যা হামাস শহর থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত সেখানেও সিরীয় বাহিনীর সাথে বিরোধী অস্ত্রধারী দলের যুদ্ধ চলছে. এছাড়া জুসিই, রাবেল, নাজারি, এল-হাউলা ও আত-তেইবে শহরগুলোতে বিরোধী দলকে লক্ষ্য করে হেলিকপ্টার ও মর্টার হামলা করা হচ্ছে.