আগামী ২০১৪ সালে সোচীতে শীতকালীন অলিম্পিক ক্রীড়া আসরে রাশিয়ার আশানুরূপ ফলাফলের জন্য রুশী খেলোয়াড়দের ১৫টি স্বর্ণ পদক লাভ করতে হবে. এমন মতামত জানিয়েছেন রাশিয়ার অলিম্পিক কমিটি প্রধান আলেক্সান্দার জুকোভ. সম্প্রতি মস্কোর একটি স্কুলে অলিম্পিক ক্লাস পরিচালনার সময় এ কথা বলেন তিনি.

অলিম্পিক ক্লাসে আলেক্সান্দার জুকোভের সাথে ছিলেন রাশিয়ার প্যারাঅলিম্পিক কমিটির জেনেরাল সেক্রেটারি মিখাইল তেরেনতেভ এবং লন্ডন অলিম্পিকে জুডোতে রৌপ্য পদক অর্জনকারী আলেক্সান্দার মিখাইলিন. রাশিয়ার অলিম্পিক কমিটির প্রধান তরুণ শিক্ষার্থীদের অলিম্পিক ক্রীড়া আসরের ইতিহাস, অলিম্পিকের মর্যাদা, উদ্দেশ্য ও স্মরকের গুরুত্ব নিয়ে বিশদ বর্ণনা করেন. আলেক্সান্দার জুকোভ একই সাথে সম্প্রতি শেষ হওয়া লন্ডন অলিম্পিকে রুশী ক্রীড়াবিদদের অংশগ্রহণের ওপর আলোচনা করেন. উল্লেখ্য, লন্ডন অলিম্পিকে রাশিয়া মোট ৮২টি পদক অর্জন করে এবং যার মধ্যে ছিল ২৪টি স্বর্ণপদক, ২৬টি রৌপ্যপদক ও ৩২টি ব্রোঞ্জপদক.

অলিম্পিক কমিটি প্রধান বলেন, রাশিয়া যেই দিন অলিম্পিক গেমস আয়োজনের যোগ্যতা অর্জন করে তারপর থেকেই রাশিয়ার শিশুদের খেলাধুলার প্রতি আগ্রহ বৃদ্ধি পেয়েছে. আলেক্সান্দার জুকোভ বলেন, “অবশ্যই, যখনই অলিম্পিক গেমস আয়োজনের দায়িত্ব কোন দেশের ওপর পড়ে স্বভাবতই খেলাধুলার প্রতি আগ্রহ অনেক বেড়ে যায়. আমাদের উদীয়মান তরুণ খেলোয়াড়রা সবাই লন্ডন অলিম্পিক ও প্যারাঅলিম্পিক গেমস দেখেছে. যখন শিশুরা নিজেরাই অলিম্পিক খেলা দেখে এবং এ বিষয়ে আরও জানতে পারে, তখন তাদের নিজেদেরই ক্রীড়া নিয়ে অনুশীলন করার ইচ্ছা জাগে. আমরা দেখেছি, সোচী অলিম্পিককে কেন্দ্র করে তরুণদের অনেক আগ্রহ রয়েছে. স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে যে সব শিক্ষার্থীরা সোচীতে যাওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছে তাদের সংখ্যা অনেক. ১টি আসনের জন্য প্রার্থী অন্তত ৩০ জন. আমাদের প্রয়োজন ২৫ হাজার স্বেচ্ছাসেবক. দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আমাদের কাছে আবেদনপত্র আসছে. এদের সবারই অলিম্পিক ক্রীড়া আসরে অংশগ্রহণ করার ইচ্ছা রয়েছে”.

স্কুল পড়ুয়াদের এ কালের উপহার দিয়েছেন জুডোবিদ আলেক্সান্দার মিখাইলিন. নিজের অর্জন করা অলিম্পিক মেডেলটি তিনি আগ্রহী সবাইকে নিজের হাতেই দেখার সুযোগ করে দিয়েছেন. আলেক্সান্দার মিখাইলিনকে প্রশ্ন করার সুযোগ পায় শিক্ষার্থীরা. সোচীতে ২০১৪ সালে অলিম্পিকে রুশী ক্রীড়াবিদরা কয়টি পদক অর্জন করবে এবং রাশিয়ায় গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকের আসর কখন অনুষ্ঠিত হব, আলেক্সান্দার জুকোভের কাছে এসব প্রশ্নের উত্তর জানতে চায় শিক্ষার্থীরা.

রাশিয়ার অলিম্পিক কমিটির প্রধান মনে করেন, আশানুরূপ ফলাফলের জন্য রুশী খেলোয়াড়দের ১৫টি স্বর্ণ পদক লাভ করতে হবে. গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক গেমস আয়োজনের জন্য রাশিয়া আগামী ১০ বছরের মধ্যে আবেদন জানাবে. আলেক্সান্দার জুকোভ বলেন, “আগামী ২ বছর পর আমাদের দেশে অলিম্পিক গেমস অনুষ্ঠিত হওয়া ছাড়া ২০১৮ সালে রাশিয়ায় ফিফা বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর বসবে. আমার মনে হয়, এটি বিশ্বের ২য় গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা. তাই আমরা অলিম্পিক গেমস ও বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের পরই গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক আয়োজনের জন্য ২০২০ সালে আবেদনপত্র জমা দিব”.

উল্লেখ্য, গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া অলিম্পিক গেমসের নানা খুঁটিনাটি বিষয়ের ওপর অলিম্পিক শিক্ষা নামের চুড়ান্ত কোর্স শেষ হয়েছে. ১ মাস ধরে চলা ১ লাখেরও বেশী অলিম্পিক ক্লাসে অংশ নেয় ৪ মিলিয়ন স্কুল শিক্ষার্থী. আলেক্সান্দার জুকোভ আরও জানান যে, এ ধরণের শিক্ষা কার্যক্রম নিয়মিতভাবেই স্কুলগুলোতে আয়োজন করা হবে.