ইউরোপীয় সঙ্ঘ সেই সব দেশের গণতান্ত্রিক রূপান্তরে আরও সক্রিয় সাহায্য করতে চায়, যেখানে “আরব্য বসন্তের” ঘটনাবলি ঘটেছিল. ইউরোপীয় কমিশন এবং পররাষ্ট্র নীতি এবং নিরাপত্তার নীতি সংক্রান্ত ইউরোপীয় সঙ্ঘের সর্বোচ্চ প্রতিনিধি ক্যাথ্রিন অ্যাশটন ইউরোসঙ্ঘের পরিষদে উত্তর আফ্রিকার উত্তরণশীল দেশগুলির প্রতি সমর্থন বাড়ানোর একসারি প্রস্তাব পেশ করেছেন. অ্যাশটন উল্লেখ করেন যে, বৈপ্লবিক পরিবর্তন একসারি সমস্যা সৃষ্টি করেছে, যা নতুন শাসন ব্যবস্থার পক্ষে একা সামলানো কঠিন. এ প্রস্তাবে অনুমিত আছে “দ্রুত, পৃথক ও সমাহারিক” ব্যবস্থা. এমন দৃষ্টিভঙ্গীতে আছে প্রেরণা দেওয়া, “যত বেশি, তত বেশি” মূলনীতি অনুযায়ী, অর্থাত্, যত বেশি প্রগতি অর্জিত হবে গণতান্ত্রিক রূপান্তরে, তত বেশি সাহায্য আসবে ইউরোসঙ্ঘের কাছ থেকে.