ফ্রান্সে এই রকমের একজনের হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে, বলে খবর দিয়েছে আল- জাজিরা সংবাদ সংস্থা. ওমরান শাবান নামের এই ব্যক্তিকে ২০১২ সালের জুলাই মাসে গাদ্দাফির পক্ষের লোকরা ধরে নিয়ে গিয়ে অত্যাচার করেছিল. শাবান ও আরও দুই জন বন্দী আটকে ছিল ৫০ দিন, পরে এক কথাবার্তার ফলে লিবিয়ার কংগ্রেসের নেতা তাদের ছাড়িয়ে এনেছিলেন. মিসুরাত শহরে, যেখানে এই ওমরান শাবানকে কবর দেওয়া হবে, সেখানে শোক দিবস ঘোষণা করা হয়েছে. সির্ত শহরে ২০১১ সালের ২০শে অক্টোবর ন্যক্কার জনক ভাবে গাদ্দাফিকে গ্রেপ্তার, অত্যাচার ও হত্যা করা হয়েছিল, এই ঘটনায় অংশ নেওয়া কিছু লোক এর মধ্যেই নিহত হয়েছে গুপ্ত ঘাতকদের হাতে. শাবানের আত্মীয়রা জানিয়েছেন যে, গাদ্দাফিকে ধরার জন্য যারা অংশ নিয়েছিলেন, তাদের কেউই এই কাজের জন্য আগে আশ্বাস দেওয়া আট লক্ষ ডলারের কোন অর্থই পান নি.