জাপান চীনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছে, যে বিতর্কিত সমুদ্রাঞ্চল সেনকাকু দ্বীপপুঞ্জে, যাদের চীনা নাম দিয়াওইদাও, সেখানে চীনা প্রহরাদারী জাহাজ ঢুকেছিল. জাপানে চীনের রাষ্ট্রদূতকে জরুরী ডাকা হয়েছিল ও মৌখিকভাবে তাকে এ ব্যাপারে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে. আপাততঃ জাপানের সীমান্তরক্ষী জাহাজগুলি চীনা জাহাজদের আক্রমণ করেনি. ৪টে চীনা জাহাজ এখন বিতর্কিত সেনকুকার সমুদ্রসীমায় রয়েছে. সবমিলিয়ে ৬টা চীনা জাহাজ ওখানে ঢুকেছিল. জাপানের প্রহরাদারী জাহাজগুলি রেডিওর মাধ্যমে চীনাদের সতর্ক করে দিচ্ছে. চীনাদের মতে, তারা নিজস্ব এলাকায় মাছ ধরার জায়গা পাহারা দিচ্ছে. চীনের কৃষিমন্ত্রী বলেছেন, যে ঐ জাহাজগুলি পাঠানো হয়েছে চীনের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করা ও চীনা জেলেদের সুরক্ষা দেওয়ার জন্য. এই সপ্তাহে জাপানের সরকার জাপানী ব্যক্তিগত মালিকের কাছ থেকে ৫টা দ্বীপের মধ্যে ৩টে দ্বীপ কিনে নেওয়ার পরেই চীন ওখানে জাহাজগুলি পাঠিয়েছে. চীন জাপানকে স্মরণ করিয়ে দিয়েছে, যে ঐ দ্বীপগুলির সরকারীকরন নিষিদ্ধ. চীনের বহু শহরে এই অভিযোগে গণমিছিল হয়েছে.